বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১
TheWall
TheWall

ঝকঝকে এসি বিল্ডিং, আধুনিক পরিষেবা! বেসরকারি হাসপাতালকে হার মানিয়ে কলকাতা মেডিক্যালে চালু ‘এ-স্টার’ পরিষেবা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজ্যে এই প্রথম, সরকারি মেডিক্যাল কলেজে ‘এ-স্টার’ পরিষেবা শুরু হয়ে গেল আজ থেকে। এই বিশেষ ব্যবস্থা প্রথম চালু হল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে। এ-স্টার পরিষেবা পাওয়ার জন্য প্রায় ফাইভ স্টার হোটেলের ধাঁচে তৈরি হয়েছে সুপার স্পেশ্যালিটি ব্লকের বিল্ডিং।

সেন্ট্রালি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই বিল্ডিংয়ে ঢুকতে গিয়ে দেখা গেল, সেন্সর লাগানো কাচের দরজা রয়েছে সামনেই। রোগী ও আত্মীয়দের বসার জন্য রয়েছে সার দেওয়া স্টিলের চেয়ার। নানা রকম আধুনিক সরঞ্জাম চার দিকে।

সূত্রের খবর, এখনও উদ্বোধন হয়নি এই বিভাগের। কিন্তু তার আগেই চালু করে দেওয়া হল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের এই বিশেষ পরিষেবা। আজ, সোমবার আটটি স্পেশ্যাল বিষয়ের আউটডোর বিভাগ চালু হল। সেগুলি হল, নিউরো মেডিসিন, নিউরো সার্জারি, ডায়াবেটিক ক্লিনিক, জেরিয়াট্রিক ক্লিনিক, এন্ডোক্রিনিক ক্লিনিক, ইউরোলজি, গ্যাস্ট্রো মেডিসিন, গ্যাস্ট্রো সার্জারি। এর পরে ধীরে ধীরে আরও নানা বিভাগ খুলবে। ধাপে ধাপে চালু হবে তিনটি সুপার স্পেশ্যালিটি অপারেশন থিয়েটারও।

এত আধুনিক ও আরামদায়ক ব্যবস্থায় স্বভাবতই খুশি রোগী ও আত্মীয়রা। ঘণ্টার পর ঘণ্টা রোদে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করতে হচ্ছে না আর। এসির ঠান্ডায় চেয়ারে বসেই নাম লেখানোর জন্য অপেক্ষা করতে পারছেন তাঁরা। পরিবেশ অনেক পরিচ্ছন্ন। পরিষেবাও উন্নত।

শ্যমলাল নিয়োগী নামের এক রোগীর আত্মীয় বলেন, “রোদ্দুরের মধ্যে আর লাইনে দাঁড়াতে হলো না আজ। দিব্যি বসতে পারছি এসি-তে। মাকে দেখাতে এনে সত্যি আজ ভাল লাগছে।” আর এক রোগী রমা চক্রবর্তী বলেন, “আমি নিজে অসুস্থ। কিন্তু একাই আসতে হয় ডাক্তার দেখাতে। এর আগে দু’বার লাইনে দাঁড়িয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলাম। আজ সত্যি ভালো লাগছে, অনেকটা স্বস্তি।”

সকলেই একবাক্য বলছেন, সরকারি মূল্যে এই পরিষেবা ভাবাই যায় না! বেসরকারি হাসপাতালেন থেকেও আরও বেশি ঝাঁ চকচকে ও আধুনিক এই নতুন বিল্ডিং। সকলেই খুবই খুশি। তবে একই সঙ্গে তাঁরা মনে করে নিচ্ছেন, এই ঝাঁ চকচকে পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার দায়িত্বও তাঁদেরই।

এই নতুন সুপার স্পেশ্যালিটি ব্লক উদ্বোধন করার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের। কিন্তু ভোটের তালেগোলে তা হয়ে ওঠেনি। তাই ভোট শেষ হতেই তড়িঘড়ি চালু করে দেওয়া হলো আউটডোর পরিষেবা। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন পরে সুযোগ মতো কখনও করা যাবে বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

Comments are closed.