বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

বসে গেল উত্তর দিনাজপুরের পাঞ্জিপাড়ার সেতু, আতঙ্ক এলাকায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ব্রিজ আতঙ্ক দিকে দিকে।

রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় পরপর ব্রিজ ভেঙে পড়ার ঘটনায় প্রশ্নের মুখে পূর্ত দফতর। প্রথমে কলকাতার মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ে প্রাণ হারান তিনজন। তার জের এখনও কাটেনি। এর পর টালিগঞ্জের করুণাময়ী সেতুর একটি দিক বসে যায়। সেখানে তাপ্পি মেরে অবস্থা সামাল দেওয়া হয়। শিলিগুড়ির অদূরে ফাঁসিদেওয়ায় ভেঙে পড়ে সেতু। তার পরেই কাকদ্বীপে নির্মীয়মাণ সেতু ভেঙে আতঙ্ক ছড়ায়। বৃহস্পতিবার ফের বসে যায় কলকাতার টালিগঞ্জের করুণাময়ী ব্রিজ। উত্তর দিনাজপুরের পাঞ্জিপাড়ার সেতুর বসে যাওয়ার ঘটনাও বৃহস্পতিবারের।

উত্তর দিনাজপুরের পাঞ্জিপাড়ায় সুধা নদীর উপর সেতুর একদিক বসে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকালে প্রথমে বিঘ্ন ঘটে যান চলাচলে। পাঞ্জিপাড়া ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে এই ঘটনায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনাস্থলে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের কর্মীরা ও পুলিশ পৌঁছে সেতুর বসে যাওয়া অংশকে ঘিরে রেখে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করেন। সেতুর একপাশ দিয়ে ধীর গতিতে চালানো হচ্ছে যানবাহন। ভারী যানবাহন চলাচলও নিয়ন্ত্রণ করছে পুলিশ। স্থানীয় মানুষের দাবি, ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছে সেতুর নীচের একটা অংশও।
সন্ধ্যা নামতেই সেতুর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে পড়ায় ফোর লেন রাস্তার মধ্যে ওই ব্রীজের উপরে থাকা দুটো লেন বন্ধ করে দেয় প্রশাসন। সেতুর অন্য দুই লেনে চলছে যান চলাচল।

Comments are closed.