রবিবার, অক্টোবর ২০

কল্যাণী লোকালে মহিলা কামরায় ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা দুষ্কৃতীর, গুরুতর জখম মহিলা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শিয়ালদহগামী কল্যাণী লোকাল ট্রেনের মহিলা বগিতে এক দুষ্কৃতীর ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর জখম হলেন এক মহিলা।

ট্রেনের মহিলা কামরায় পুরুষ যাত্রী ওঠা নিষেধ। সেই নিষেধ অমান্য করে এক পুরুষ যাত্রী উঠে পরে মহিলা বগিতে। এক মহিলা তার প্রতিবাদ করায় তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যায় এক দুষ্কৃতী। রক্তাক্ত অবস্থায় ওই মহিলাকে উদ্ধার করে কল্যাণী জওহরলাল নেহরু হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটে কল্যাণী মেন স্টেশনে। আহত মহিলার নাম অনিতা সাউ (৩৫)। তিনি কাঁচরাপাড়া ভূত বাগান রেল কলোনির বাসিন্দা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭:১০-এর কল্যাণী সীমান্ত লোকাল শিয়ালদার উদ্দেশে রওনা দেয়। যখন ট্রেনটি কল্যাণী মেন স্টেশনে পৌঁছয়, তখন মহিলা কামরায় এক পুরুষকে উঠতে দেখে প্রতিবাদ করেন অনিমা সাউ। তিনি ওই যুবককে ট্রেন থেকে নেমে যেতে বলেন। তারপর শুরু হয় হয় বচসা। এরই মধ্যে হঠাৎই ওই যুবক ধারালো অস্ত্র বার করে ওই মহিলার শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করতে থাকে। এই ঘটনা দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ট্রেনের অন্যান্য মহিলা যাত্রীরা। কেউ কেউ ট্রেন থেকে লাফ মেরে পালিয়ে যেতে গিয়ে জখম হন। এরই মধ্যে সুযোগ বুঝে অপর দিকের দরজা দিয়ে লাফ মেরে পালিয়ে যায় ওই দুষ্কৃতী। ঘটনার পর স্থানীয়রা আহত সকলকে উদ্ধার করে কল্যাণী জওহরলাল নেহরু হাসপাতালে নিয়ে যায়। সকলকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হলেও অনিমা দেবীর আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসা চলছে। এই ঘটনায় যদিও এখন পর্যন্ত রেল পুলিশের কাছে কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

অনিমা দেবী জানান, তিনি কল্যাণীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের কর্মী। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কাজ সেরে কল্যাণী থেকে কাঁচরাপাড়ায় বাড়ি ফিরছিলেন। ওই যুবককে মহিলা বগিতে উঠতে দেখে তিনি তাকে নেমে যেতে বলেন। তাতেই ক্ষেপে যায় ওই যুবক। কোমর থেকে একটি ধারালো অস্ত্র বের করে এলোপাথাড়ি আঘাত করতে থাকে তাকে।

এই ঘটনা দেখে আতঙ্কিত হয়ে ট্রেন থেকে লাফ দিয়ে পালাতে গিয়ে আহত হন আরো কয়েকজন মহিলা। এই সুযোগে পালিয়ে যায় ওই যুবক।

 

Comments are closed.