বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

ডেঙ্গি রোগিণীর মৃত্যু ঘিরে তুলকালাম হাবড়া হাসপাতালে, পুলিশের লাঠিচার্জ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ডেঙ্গি রোগিণীর মৃত্যু ঘিরে রণক্ষেত্র হয়ে উঠলো হাবড়া হাসপাতাল। অভিযোগ, রোগীর আত্মীয়েরা ডাক্তারকে মারধর করে এবং হুমকি দেয়। পুলিশ এসে লাঠিচার্জ করে রোগীর আত্মীয়দের চত্বর থেকে বার করে। তিন জনকে গ্রেফতারও করে। এর পর ঘটনা অন্য মোড় নেয়। যে তিন জনকে পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে, তাদের না ছাড়া পর্যন্ত হাসপাতাল থেকে মৃতদেহ নেওয়া হবে না বলে জানায় মৃত রোগীর পরিবার।

পুলিশ জানায়, নিগৃহীত চিকিৎসক তিনজনের বিরুদ্ধে করা লিখিত অভিযোগ প্রত্যাহার করে নেন এবং দোষীরাও অন্যায় স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে নেন। পরিশেষে মৃতার শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে নিয়ে যায় পরিবারের সবাই।

সূত্রের খবর, বুধবার সকাল আনুমানিক সাড়ে নটা নাগাদ জ্বর নিয়ে হাবড়া হাসপাতালে ভর্তি হন হাবড়া ছয় নম্বর ওয়ার্ডের সপ্তপল্লী এলাকার বাসিন্দা লক্ষী রাহা (৫৮)। বৃহস্পতিবার ‌সকালে তিনি মারা যান। লক্ষ্মী রাহার পরিবার জানায়, গত রবিবার জ্বর নিয়ে স্থানীয় এক ডাক্তারের পরামর্শে রক্ত পরীক্ষা করার পর রক্তে ডেঙ্গুর জীবাণু ধরা পড়ে। বুধবার হাবড়া হাসপাতালে ভর্তি করার পর রক্ত পরীক্ষা করা হলে দেখা যায় রক্তের প্লেটলেট কমে গেছে। এর পর তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে।

রোগিণীর শ্বাসকষ্ট এবং উচ্চ রক্তচাপ ছিল বলে পারিবারিক সূত্রে খবর। বুধবার রাতে অবস্থার  অবনতি হয়। ওষুধ দেওয়া নিয়ে হাসপাতালকর্মীদের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয় বলে অভিযোগ। তর্কাতর্কি হয় আয়ার সঙ্গেও। অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে লক্ষী রাহার মৃত্যু হলে হাসপাতালে উওেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি সামলাতে বিশাল পুলিশ বাহিনী হাসপাতালে উপস্থিত হয়। ঘটনায় এক আয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে  হাবড়া থানার পুলিশ।

Comments are closed.