বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

লাইভ: অযোধ্যা মামলার চূড়ান্ত রায় জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট

  • সকাল সাড়ে ১০টা- রায়দান প্রক্রিয়া শুরু করল সুপ্রিম কোর্ট
  • ১০টা ৩৫- সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ জানালেন, গোটা রায় প্রক্রিয়ার জন্য সময় লাগতে পারে আধঘণ্টা। একথা বলে রায় পড়তে শুরু করলেন প্রধান বিচারপতি
  • ১০টা৩৬- পাঁচজন বিচারপতির রায় শোনাচ্ছে। প্রধান বিচারপতি জানালেন শুনানির রায় নিয়ে সব বিচারপতি সহমত হয়েছেন। তাই সর্বসম্মত রায় ঘোষণা করা হচ্ছে।
  • ১০টা ৩৭- ১৯৪৫ সালের অর্ডারকে চ্যালেঞ্জ করে সিয়া ওয়াকফ বোর্ড যে পিটিশন দাখিল করেছিল তা সর্বসম্মতিতে খারিজ করা হচ্ছে।
  • ১০টা ৪০- মসজিদ কে বানিয়েছিল, কখন বানানো হয়েছিল তার কোনও প্রমাণ নেই।
  • ১০টা ৪২- পুরাতত্ত্ব বিভাগ জানিয়েছে বিতর্কিত সৌধের নীচে একটি ধাঁচা রয়েছে। এ ব্যাপারে তথ্য-প্রমাণও পেশ করেছে পুরাতত্ত্ব বিভাগ
  • ১০টা ৪৬- পুরাতত্ত্ব বিভাগ এমন কোনও তথ্য দেয়নি যে ওই ধাঁচা ভেঙেই মসজিদ গড়ে তোলা হয়েছিল। তা ছাড়া সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি এও বলেন, পুরাতত্ত্ব বিভাগ এও নিশ্চিত করে বলেনি যে ওই ধাঁচা মন্দিরই ছিল। তবে প্রধান বিচারপতি এও বলেন, এটা ঠিক যে খালি জমির উপর মসজিদ নির্মিত হয়নি।
  • ১০টা ৫০- দু’পক্ষের সওয়াল ও তাদের পেশ করা সাক্ষ্য প্রমাণই এখন পড়ে শোনাচ্ছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।
  • ১০টা ৫২- প্রধান বিচারপতি বলেন, শুনানির সময়ে এই দাবি করা হয়েছে যে হিন্দুরা ওই সৌধের কাছে পুজার্চনা করতেন। তবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড দাবি করেছে, মসজিদ ভাঙার আগে সেখানে নিয়মিত নমাজ পড়া হত। দুই সম্প্রদায়ের মানুষ সেখানে শান্তিপূর্ণ ভাবে ধর্মাচরণ করত।
  • ১০টা ৫৬- জমির মালিকানা দাবি করে নির্মোহী আখাড়া যে টাইটেল স্যুট দাখিল করেছিল তাও খারিজ করল কোর্ট।
  • ১১টা – প্রধান বিচারপতি বলেন, সীতা রসুইয়ের উপর অধিকারের দাবি করেছে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড। তাদের দাবি, তারা দীর্ঘ দিন ধরে সেই স্থান ব্যবহার করত। কিন্তু সেই দাবির সপক্ষে গ্রহণযোগ্য কোনও যুক্তি নেই।
  • ১১ টা ০৩ মিনিট- তবে এ সবই দুই পক্ষের দাবিদাওয়া। এখনও পর্যন্ত মূল রায় ঘোষণা করেনি সুপ্রিম কোর্ট। সব পক্ষের মতামত, দাবি পাল্টা দাবি পড়ে শুনিয়ে তার পরই চূড়ান্ত রায় শোনাবেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে পাঁচ জন বিচারপতির বেঞ্চ।
  • ১১টা ৭ মিনিট- জমির মালিকানা নিয়ে নির্মোহী আখাড়ার দাবি যেমন খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তেমনই প্রধান বিচারপতি বলেন, ওই বিতর্কিত জমির যে মালিকানা দাবি করেছে সুপ্রিম কোর্ট তারও কোনও ভিত্তি নেই।
  • ১১টা ১৫- অযোধ্যায় বিতর্কিত জমি সরকারের, মসজিদ নির্মানের জন্য পৃথক স্থানে পাঁচ একর জমি পাবেন মুসলমানরা। রায় সুপ্রিম কোর্টের

আরও পড়ুন: BIG BREAKING: অযোধ্যায় বিতর্কিত জমিতে মন্দিরই, মসজিদ নির্মাণের জন্য পৃথক স্থানে পাঁচ একর জমি: রায় সুপ্রিম কোর্টের

Comments are closed.