মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫

দক্ষিণ এশিয়ায় আল কায়দার মাথা আসিম উমরকে নিকেষ করেছি, নিশ্চিত করল আফগান সরকার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আল কায়দার দক্ষিণ এশিয়ার এই ছিল মাথা। আল কায়দা প্রধান আয়মান আল জ়াওয়াহিরির ডান হাত। ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে মাখামাখি সম্পর্ক ছিল তার। সেই আসিম উমরকেই নিকেষ করা হয়েছে বলে দাবি করল আফগানিস্তান। তালিবান ডেরায় লাগাতার এয়ারস্ট্রাইক চালাচ্ছিল মার্কিন-আফগান বাহিনী। তাতেই আসিম খতম হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আফগান সরকারের এক শীর্ষস্থানীয় আধিকারিক।

তালিবান অধ্যুষিত মুসা কালা জেলায় ডেরা বেঁধেছে আসিম এই খবর পেয়েই গত ২৩ সেপ্টেম্বর সেখানে হানা দেয় মার্কিন সেনা ও আফগান বাহিনী। সূত্রের খবর, তালিবান ঘাঁটির ভিতরেই একটি বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। সেখানেই যোগ দিতে গিয়েছিল আসিম। সেই সময় ওই এলাকায় হামলা চালায় মার্কিন-আফগান বাহিনী। আসিমের সঙ্গে আরও দশজন গুরুতর জখম বলে জানা গেছে।

আফগান সরকারের এই দাবি পুরোপুরি উড়িয়ে দিয়েছে তালিবান নেতারা। তাদের দাবি, আসিম উমর অক্ষতই আছে। তার শরীরেও আঁচও পড়েনি। শত্রপক্ষের সঙ্গে হাত মিলিয়ে ষড়যন্ত্র করে ভুল খবর রটাচ্ছে আফগান সরকার।

অফগানিস্তানের ন্যাশনাল ডিরেক্টরেট অব সিকিউরিটি (এনডিএস)জানিয়েছে, আসিম পাকিস্তানের বাসিন্দা। তবে জন্মসূত্রে ভারতীয়। ইসলামিক স্টেটের সঙ্গে আসিমের ঘনিষ্ঠতা ছিল বেশি। গোটা দক্ষিণ এশিয়ায় আল কায়দাকে নিয়ন্ত্রণ করত আসিম। মুসা কালাতে তালিবান ডেরায় কয়েক মাস ধরে আশ্রয় নিয়েছিল আসিম। সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিল। এনডিএস জানিয়েছে, এয়ারস্ট্রাইকে ৪০ জন গ্রামবাসীরও মৃত্যু হয়েছে। মনে করা হচ্ছে এই হামলায় জাওয়াহিরির ঘনিষ্ঠ রাইহানেরও মৃত্যু হয়েছে। আসিমের কাছে জাওয়াহিরির বার্তা পৌঁছে দিতে সে দিন ওই বিয়েবাড়িতে যোগ দিয়েছিল রাইহানও।

২০০১ সাল থেকে আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে। তার আগে পাঁচ বছর কট্টর তালিবানি শাসন জারি ছিল দেশে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান থেকে এখনই সম্পূর্ণ ভাবে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা ভাবছে না ওয়াশিংটন। তালিবান যাতে নতুন করে মাথাচাড়া দিতে না পারে, তার জন্য কেউ না কেউ মাটি আঁকড়ে থাকবেই। এনডিএস জানিয়েছে, এই আসিমকে নিকেষ করার জন্য বরাবরই তৎপর ছিল মার্কিন-অফগান বাহিনী। ২০১৪ সাল থেকে আল কায়দায় যোগ দেয় আসিম উমর। সে সময় পাকিস্তানের পঞ্জাবি তালিবান সংগঠন তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি)-এর সক্রিয় সদস্য ছিল আসিম। পরে নাকি সিরিয়াতেও গিয়েছিল আসিম।

আরও পড়ুন:

লাদেন-পুত্র হামজ়াকে খতম করেছি, নিশ্চিত করলেন ট্রাম্প

Comments are closed.