বুধবার, অক্টোবর ১৬

যা জানি সব বলেছি, মোদী-শাহের সঙ্গে বৈঠকের পর মন্তব্য রাজ্যপালের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সন্দেশখালির ঘটনার পর রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর দিল্লি যাত্রা চূড়ান্ত হতেই গুঞ্জন শুরু হয়েছিল। তাহলে কি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে বাংলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিশদে জানাবেন রাজ্যপাল?

সোমবার মোদী-শাহের সঙ্গে বৈঠকের আগে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “রাজ্যের আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি সম্পর্কে আমার যা জানা, তা প্রধানমন্ত্রীকে খোলাখুলি জানাব।’ বৈঠক শেষে বেরিয়ে রাজ্যপাল বলেন, “আমার যা জানা ছিল সব বলেছি। এরপর কী করবেন তা ওঁরা ঠিক করবেন।”

বাংলার রাজ্যপাল হিসেবে কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২৩ জুলাই। অনেকের মতে, মেয়াদ বাড়ানোর ব্যাপারে কথা বলতেই হয়তো প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন তিনি।

যেখানে দু’দিন আগে সন্দেশখালির ঘটনা ঘটেছে, সেখানে রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান যে সে ব্যাপারে উদ্বিগ্ন হবেন তা এক রকম পরিষ্কার ছিল। সূত্রের খবর, তাঁর সেই উদ্বেগের কথাই এ দিন প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরেন কেশরীনাথ ত্রিপাঠী।

বাংলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি হোক বা কলেজে ভর্তি নিয়ে গণ্ডগোল, গত কয়েক বছরে ধারাবাহিক মুখ খুলেছেন রাজ্যপাল। সাংবিধানিক প্রধানের মন্তব্য এক এক সময়ে তৃণমূলকে অস্বস্তিতেও ফেলেছে। শাসকদল রাজ্যপালের বিরুদ্ধে রাজনীতি করার অভিযোগও তুলেছেন। এ দিন ফের একবার রাজ্যের ব্যাপারে দিল্লির কাছে উদ্বেগ জানালেন তিনি।

Comments are closed.