বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮

সব্যসাচীর ভূমিকায় বিজেপির লাভ, জল্পনার মাঝেই নয়া মন্তব্য মুকুলের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্তকে নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের অস্বস্তি বাড়িয়ে দিলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়। সব্যসাচীকে নিয়ে জল্পনায় তাঁর ভূমিকা সব থেকে বেশি। তিনি বিধাননগরের মেয়র তথা রাজারহাট নিউটাউনের তৃণমূল বিধায়কের বাড়িতে লুচি-আলুরদম খেয়ে আসার পর থেকেই সব্যসাচীর সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের দূরত্ব বেড়ে চলেছে। লোকসভা নির্বাচনের আগে সেই ঘটনার এখনও কোনও পরিণতি হয়নি তবে সব্যসাচী যে দল বিরোধী কাজ করছেন এবার সেটা স্পষ্ট করে বলতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর তার মধ্যেই মুকুল রায় বললেন, “সব্যসাচীর ভূমিকা বিজেপির জন্য ভালো কাজ করেছে।”

তবে কি এ বার সব্যসাচীর সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের সম্পর্ক শেষ হওয়ার দিন সমাগত? এই প্রশ্নের সরাসরি উত্তর না দিলেও মুকুল রায় বলেন, “সব্যসাচী কী করবেন সেটা বলতে পারব না কিন্তু ওর ভূমিকা বিজেপির জন্য ভালো হয়েছে। অনেক বিধায়ক বিজেপিকে ভোট দিয়েছে, বিজেপির হয়ে কাজ করেছে। আর তাতেই বিজেপির এত ভালো ফল হয়েছে।”

রবিবার কলকাতায় আইসিসিআর সভাগৃহে বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠেক যোগ দেন মুকুল রায়। সেখানেই সাংবাদিকদের কাছে সব্যসাচীর ভূমিকাকে সমর্থন করে মন্তব্য করেন তিনি। এ দিনই আবার বিধাননগরের কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠকে বসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সেই বৈঠকে ডাকাই হয়নি সব্যসাচী দত্তকে। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, এই বৈঠক থেকেই সব্যসাচীকে সরানোর উদ্যোগ নেওয়া হতে পারে। এই প্রসঙ্গে মুকুল রায় বলেন, মেয়র পদ থেকে কাউকে এমনি এমনি সরিয়ে দেওয়া যায় না। নির্বাচনের মধ্যমে সরাতে হয়।

মুকুল রায়ের এই মন্তব্যও তৈরি করছে নতুন জল্পনা। এ দিনই সব্যসাচী তাঁর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এলে কী হবে সেই প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন, সময়ে সব স্পষ্ট হবে। বৃষ্টি এলেই তিনি রেনকোট বের করবেন বা ছাতা নেবেন। তবে কি পাল্টা প্রস্তুতি রয়েছে সব্যসাচীরও। তারই কি ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি এবং মুকুল রায়! নতুন জল্পনায় জমে উঠেছে রবিবাসরীয় রাজনীতি।

Comments are closed.