শনিবার, মার্চ ২৩

ভুল ইঞ্জেকশনে নাকমুখে রক্ত, সদ্যপ্রসূতির মৃত্যুতে চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ

পারিবারিক সূত্রের খবর, মঙ্গলবার বাঘাযতীন হাসপাতালে ভর্তি হন পাটুলি থানা এলাকার ঘোষপাড়ার বাসিন্দা ,১৯ বছরের ঋতু। অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন তিনি, কিন্তু কোনও শারীরিক জটিলতা ছিল না আগাম। মঙ্গলবার, নির্ধারিত তারিখ অনুযায়ীই প্রসব বেদনা শুরু হয় তাঁর, তখনই ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

বুধবার সকালেই একটি কন্যাসন্তানের জন্মও দেন ঋতু, নিরাপদেই। এর পরে দুপুরেই চিকিত্‍সকেরা জানান, যে ঋতু রায়ের মৃত্যু হয়েছে। অভিযোগ, প্রসবের কিছু ক্ষণ পরেই একটি ইঞ্জেকশন দেওয়ার কারণে মারা যান ঋতু। ঋতুর স্বামী রাকেশ রায় বলেন, “ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার পরই ওর নাক-মুখ থেকে রক্ত বেরোতে শুরু করে। চিকিৎসকদের গাফিলতির জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে।” এর পরেই ক্ষোভের মুখে পড়েন চিকিৎসকেরা।

উত্তেজনা ছড়ায় হাসপাতাল চত্বর জুড়ে। মৃতার পরিজনদের ক্ষোভের মুখে পড়েন চিকিৎসকেরা। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই নেতাজিনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ঋতু রায়ের বাড়ির লোকেরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে দেহটির ময়নাতদন্ত করা হবে। রিপোর্ট হাতে এলেই তার ভিত্তিতে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Shares

Comments are closed.