বৃহস্পতিবার, জুন ২০

লখনউয়ে কাশ্মীরিদের মারধরের নিন্দা মোদীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : বুধবার লখনউয়ের রাস্তায় দুই কাশ্মীরি ফল বিক্রেতাকে মারধর করেছিল একটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের সমর্থকরা। শুক্রবার কানপুরে এক জনসভায় সেই ঘটনার নিন্দা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আক্রমণকারীদের তিনি বললেন পাগল। রাজ্য সরকারকে বললেন, যারা এই ধরনের কাজ করেছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

তাঁর কথায়, গত পরশু কয়েকটা পাগল লখনউয়ে কাশ্মীরি ভাইদের আক্রমণ করেছিল। উত্তরপ্রদেশ সরকার দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছে। যোগী আদিত্যনাথ সরকারকে আমি অভিনন্দন জানাই। আমি সব রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছি, কোথাও এই ধরনের ঘটনা ঘটলেই যেন কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হয়। দেশে ঐক্যের বাতাবরণ বজায় রাখা জরুরি।

কানপুরে মোদী নিহত সিআরপিএফ কনস্টেবল শ্যাম বাবু ও বায়ুসেনার কর্পোরাল দীপক পাণ্ডের উদ্দেশে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। শ্যামবাবু পুলওয়ামার ঘটনায় শহিদ হয়েছিলেন। কাশ্মীরের বাদগামে হেলিকপ্টার ভেঙে দীপক পাণ্ডে মারা যান।

মোদী বলেন, পুলওয়ামায় হামলার পরে আমাদের বীর যোদ্ধারা যথেষ্ট সাহস দেখিয়েছেন। কিন্তু আমাদের দেশেই সেনাবাহিনীর বদনাম করার চেষ্টা হচ্ছে। এই সব লোকের লজ্জা হওয়া উচিত।

জম্মুতে বৃহস্পতিবারের গ্রেনেড হামলার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের সরকার সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। জঙ্গিরা বুঝতে পারছে, তাদের দিন ঘনিয়ে এসেছে। তাই তারা জম্মুতে শয়তানি ছক কষেছিল।

রাজস্থানে এক জনসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, আমি সব রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছি, কাশ্মীরি ছাত্রদের জন্য নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে। তাঁর কথায়, আমি সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে বলেছি, কাশ্মীরিরা আমাদেরই দেশের মানুষ। দেশের নানা প্রান্তে যে কাশ্মীরি ছাত্ররা পড়াশোনা করছে, তারা যেন সুরক্ষিত থাকে।

Comments are closed.