Exclusive: পঞ্চায়েত-হিংসা নিয়ে ফের রিপোর্ট তলব মোদী সরকারের

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: পঞ্চায়েত ভোটে রাজ্য জুড়ে হিংসা ও মৃত্যুর মিছিল দেখে মঙ্গলবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, বাংলায় গণতন্ত্র নেই।

    তার পর চব্বিশ ঘন্টা কাটল, পঞ্চায়েতে সন্ত্রাসের ঘটনা নিয়ে কৈফিয়ত তলব করে ফের রাজ্যের কাছে চিঠি পাঠাল কেন্দ্র। প্রসঙ্গত, সোমবার পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন সন্ধ্যাতেই রাজ্যের মুখ্য সচিব মলয় দে-কে ই-মেল করে করে রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। মঙ্গলবার সেই চিঠির জবাব কেন্দ্রের কাছে পাঠিয়েছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু বুধবার ফের মুখ্যসচিবকে ই-মেল করা হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে। তাতে বলা হয়েছে, রাজ্য সরকার যে রিপোর্ট পাঠিয়েছে তাতে তারা সন্তুষ্ট নয়। রাজ্য যেন অবিলম্বে পূর্ণাঙ্গ চিঠি পাঠায় কেন্দ্রের কাছে।

    প্রশ্ন হল, রাজ্যের প্রথম রিপোর্টে কেন সন্তুষ্ট নয় কেন্দ্র? কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রে বলা হচ্ছে, পঞ্চায়েত ভোটে হিংসা নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিংহকে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। রাজ্যের কোন জেলায় পঞ্চায়েত-হিংসায় কত জন বলি হয়েছেন, তার সবিস্তার হিসাব রয়েছে সেখানে। প্রশাসনের ভূমিকা নিয়েও তাঁর মত সেখানে জানিয়েছেন কেশরীনাথ। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কর্তাদের বক্তব্য, রাজ্যপালের রিপোর্টের সঙ্গে রাজ্যের রিপোর্টের প্রভূত অসঙ্গতি রয়েছে। রাজ্যের রিপোর্ট পড়ে মনে হচ্ছে, এক প্রকার শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন হয়েছে পঞ্চায়েত নির্বাচন। কিন্তু সংবাদমাধ্যমে ভোটের দিনের যে ছবি দেখা গিয়েছে, তা বিপরীত বার্তাই দিচ্ছে।

    নবান্নের তরফে এ ব্যাপারে অবশ্য এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তবে তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য, রাজ্যপাল বিজেপি-র নেতার মতো কাজ করছেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকও রাজনৈতিক প্রভুদের ইশারায় চলছে। তবে এ ধরনের রাজনীতি করে বাংলার মানুষের সমর্থন পাওয়া যাবে না, সেটা যেন মোদী-অমিত শাহরা মনে রাখেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Leave A Reply

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More