শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০

মারুতি সুজকির গাড়ি বিক্রি ৭ বছরের মধ্যে সবচেয়ে কম

দ্য ওয়াল ব্যুরো : চাহিদা কমেছে। তাই হু হু করে কমছে মারুতি সুজকির গাড়ি বিক্রি। মারুতি সুজুকি ইন্ডিয়া লিমিটেড জানিয়েছে, সাত বছরের মধ্যে ওই সংস্থার গাড়ি বিক্রি হচ্ছে সবচেয়ে কম। বৃহস্পতিবার সংস্থার তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গত বছর জুলাই মাসে তাদের ১ লক্ষ ৯ হাজার ২৬৪ টি গাড়ি বিক্রি হয়েছিল। এবার জুলাইয়ে বিক্রি হয়েছে তার থেকে ৩৪ শতাংশ কম।

মারুতি সুজকির হ্যাচব্যাক মডেলের বিক্রি কমেছে ২৩ শতাংশ। তার প্রিমিয়াম মডেল সিয়াজ সেডানের বিক্রি অবশ্য গত বছরের তুলনায় বেড়েছে। পর্যবেক্ষকদের ধারণা, ভারতীয় অর্থনীতির বিকাশের হার কমে যাওয়ার ফলেই ২০১২ সালের অগাস্টের পরে এখন মারুতি সবচেয়ে কম বিক্রি হচ্ছে। ঋণদাতারা নতুন করে ঋণ দিতে চাইছেন না। গত জুলাই মাসে মারুতির শেয়ারের দামও ৪০ শতাংশ পড়েছে।

নির্মল ব্যাং ইকুইটিজ প্রাইভেটের সঙ্গে যুক্ত অর্থনীতিবিদ টেরেসা জন বলেন, গাড়ির বিক্রি বাড়ছে না। তাতে বোঝা যায়, সামগ্রিকভাবে এখন অর্থনীতির অবস্থা খারাপ নয়। উপভোক্তারা এখনও বেশি ব্যয় করতে ভরসা পাচ্ছেন না। গত মাসে বাজেট পেশ করেছে মোদী সরকার। তাতে গাড়ি নির্মাতা সংস্থাগুলিকে সাহায্য করার জন্য বিশেষ কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। সেই দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়া হয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ওপরে। ওই কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক চলতি বছরে তিনবার সুদের হার কমিয়েছে।

গাড়ি বিক্রি কমার ফলে মারুতি সুজুকির ওপরে নানাভাবে চাপ সৃষ্টি হচ্ছে। নতুন নতুন মডেলের গাড়ি বাজারে আনা তাদের পক্ষে বাধ্যতামূলক হয়ে দাঁড়াচ্ছে। বর্তমানে মারুতির প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী সংস্থা হল কিয়া মোটরস কর্পোরেশন ও এসএআইসি মোটর কর্পোরেশন। এছাড়া হুন্ডাই মোটর কর্পোরেশনও মারুতির মার্কেট শেয়ারে ভাগ বসিয়েছে।

Comments are closed.