মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২১
TheWall
TheWall

নির্বাচনে পড়বে প্রভাব, নেট-দুনিয়া থেকে ‘বাঘিনী’র ট্রেলার তুলে নেওয়ার নির্দেশ দিল কমিশন

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিক ‘বাঘিনী’ নিয়ে আগেই রিপোর্ট চেয়েছিল নির্বাচন কমিশন। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের দফতরকে এ ব্যাপারে রিপোর্টও জমা দিতে হয় তৃণমূলকে। এর পরে কমিশন জানিয়েছিল, মে মাসের শুরুতে মুক্তি পেতে চলা ছবি বাঘিনীর বিষয়বস্তু খতিয়ে দেখা হবে।

আজ, মঙ্গলবার, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই বায়োপিক নিয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করল নির্বাচন কমিশন। সূত্রের খবর, গত কালই গুগুলকে চিঠি দেওয়া হয়। ইউটিউব থেকেও ছবির ট্রেলার তুলে নিতে বলা হয়। জানানো হয়েছে, ছবিটি ছাড়পত্র পেলে তবেই ফের দেখানোর ব্যাপারে ভাবা হবে। ইউটিউব-সহ তিনটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বাঘিনীর ট্রেলারটি দেখানো হচ্ছিল।

রাজ্য বিজেপির তরফে  দাবি করা হয়েছিল, বাঘিনী ছবিটির বিষয়বস্তু খতিয়ে দেখা হোক, নির্বাচনী প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত ছবি মুক্তির উপর নিষেধাজ্ঞাও জারি হোক করা।

অন্য দিকে নির্বাচনী প্রক্রিয়ার মাঝেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিক মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। একদম শেষ মুহূর্তে তা স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। এবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘বায়োপিক’ ঘিরেও তরজা শুরু গেল। আগামী মাসের ৩ তারিখ বাঘিনী নামে ওই ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা।

বস্তুত, দীর্ঘদিন ধরেই ছবিটি নিয়ে নানা মহলে চর্চা চলছে। নির্বাচনের মাঝেই সেটি মুক্তি পাওয়ার কথা শুনে আরও বিতর্ক দেখা দেয়। রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি জয়প্রকাশ মজুমদার এবং শিশির বাজোরিয়া কমিশনে চিঠি লিখে দাবি করেন, সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে বাঘিনী নামের ছবিটি মুখ্যমন্ত্রীর জীবন নিয়ে তৈরি। এমন অবস্থায় যে ভাবে প্রধানমন্ত্রীর বায়োপিক খতিয়ে দেখা হয়েছিল, এখানেও তাই হোক।

কয়েক দিন আগে নির্বাচন কমিশন জানায় যত দিন না ভোট প্রক্রিয়া মিটছে, তত দিন প্রধানমন্ত্রীর বায়োপিক মুক্তি পাবে না। আর তাই এপ্রিল মাসের ১১ তারিখ ওই ছবিটির মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও, বিবেক ওবেরয় অভিনীত ছবিটির মুক্তি স্থগিত হয়েছে।

কংগ্রেসের মতো বিরোধী দলগুলি দাবি করেছিল, নিজের জীবনের সংগ্রামের কাহিনী সিনেমার মাধ্যমে প্রচার করে ভোটারদের প্রভাবিত করতে চাইছেন প্রধানমন্ত্রী। আর তাই ছবিটি বন্ধ করে দেওয়া দরকার। এই মর্মে কমিশনে অভিযোগও জমা পড়ে। একই ভাবে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে নমো টিভির উপরও।

এর পরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জীবন অভলম্বনে তৈরি বাঘিনীর উপরেও একই কোপ পড়ল।

Share.

Comments are closed.