প্রণবের নাগপুর সফর নিয়ে উষ্মা গোপন করলেন না মমতা

0

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের নাগপুর সফর নিয়ে প্রথমবারের জন্য মুখ খুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একটি ইংরাজী পাক্ষিককে দেওয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রণবের নাগপুর সফর নিয়ে মমতাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘দয়া করে আমাকে এ প্রসঙ্গে কিছু জিজ্ঞাসা করবেন না। আমি ডিস্টার্বড।’ আরএসএস যদি তাঁকে ডাকে তাহলে কি তিনি যাবেন? এই প্রশ্নের উত্তরে মমতা স্পষ্ট জানিয়ে দেন, আরএসএস যদি বিজেপি কে ছাড়ে এবং দেশের ঐক্য প্রতিষ্ঠায় সক্রিয় হয় তাহলে ভেবে দেখব। তার আগে নয়।’

    গত ৭ জুন আরএসএস-এর তৃতীয় বর্ষের ক্যাডারদের সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আরএসএস-এর হেড কোয়ার্টারে গিয়েছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। একদা কংগ্রেসের শীর্ষ নেতা তথা ইন্দিরা গান্ধীর স্নেহধন্য প্রণব বাবু যে আরএসএস হেড কোয়ার্টারে যাচ্ছেন সে খবর সবার প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল দ্য ওয়ালেই। এক পক্ষকাল আগেই যেদিন ওয়ালে এই খবর প্রকাশ হয়, সে দিনই ফোনে যোগাযোগ করা হয়েছিল প্রণব কন্যা শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে। দিল্লি কংগ্রেসের মুখপাত্র একরাশ বিরক্তি নিয়ে জানিয়ে দিয়েছিলেন, ‘আমি এ ব্যাপারে কিছু বলতে পারব না। ওনার দফতরকে জিজ্ঞেস করুন।’ একই রকম উষ্মা ঝরে পড়ল মুখ্যমন্ত্রীর গলা দিয়ে।

    প্রণব বাবুর নাগপুর যাওয়া নিয়ে বিভিন্ন দলের নেতারা বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন। তৃনমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও বলেছিলেন তিনি বর্ষীয়ান প্রণববাবুর আরএসএস-এর মঞ্চে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন না। কিন্তু মুখ খোলেননি মমতা। এই সাক্ষাৎকারে মমতা বুঝিয়ে দিলেন তিনিও মেনে নিতে পারেননি কীর্ণাহারের বৃদ্ধ ব্রাহ্মণের নাগপুর সফর।

    রাজনীতিতে প্রণব-মমতা সম্পর্ক রোদ-ছায়ার মতো।  ইউপিএ-২ সরকার থেকে সমর্থন তুলে নেওয়ার পর গোড়ায় কংগ্রেসের রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসাবে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের বিরোধিতা করেছিল তৃণমূল। পরে অবশ্য সমর্থন জানাতে একপ্রকার বাধ্য হয় তারা। আবার রাষ্ট্রপতি হয়ে যাওয়ার পর ‘প্রণব দা’র জন্য নেতাজী ইন্ডোরে রাজকীয় নাগরিক সংবর্ধনার আয়োজন করেছিলেন দিদি। এরপরও রাষ্ট্রপতি থাকার সময় বাংলা সফরে এসে একাধিকবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের জনমুখী কাজের প্রশংশায় পঞ্চমুখ হয়েছিলেন প্রণব মুখোপাধ্যায়। কিন্তু এই সাক্ষাৎকারে মমতা বুঝিয়ে দিলেন, তাঁর এবং প্রণব বাবুর সম্পর্ক যদি আয়না হয় তাহলে নাগপুর সফর সেই কাঁচে লম্বা একটা দাগ।

    যদিও প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ‘উনি কার সমালোচনা করছেন? উনি তো নিজেই বিজেপি, আরএসএস-এর সঙ্গে ঘর করেছেন এক সময়। আরএসএস-এর মুখপত্র পাঞ্চজন্য পত্রিকার অনুষ্ঠানে উনিই তো অতিথি হয়ে গিয়েছিলেন। যেখানে সঙ্ঘ নেতা অশোক সিংহল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেবী দুর্গা বলে সম্বোধন করেছিলেন। প্রণববাবু’র নাগপুর সফর মেনে নেওয়া যায় না কিন্তু ওঁর মুখেও প্রণববাবুর সমালোচনা মানায় না।’

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Leave A Reply

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More