Latest News

লেবুতেই বাজিমাৎ! নতুন বছরে উজ্জ্বল ত্বক পেতে চাইলে ট্রাই করুন এই দুটি প্যাক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আজকাল স্কিনকেয়ার সকলেই সচেতন। উজ্জ্বল, চকচকে ত্বককের প্রতি টান আট থেকে আশি সকলেরই। গ্লোয়িং স্কিন কে না চায়! কিন্তু স্কিন গ্লোয়িং বা রেডিয়েন্ট বা উজ্জ্বল যেটাই চাই তা করার জন্য ইদানীংআমরা অনেকেই হয়তো কেমিক্যাল প্রোডাক্টের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছি। অথচ স্বাস্থ্যকর স্কিনের জন্য একটা ঠিকঠাক স্কিন কেয়ারই কিন্তু যথেষ্ট। ঘরে বসেই চট জলদি কিছু হোম রেমেডিস দিয়ে যদি গ্লোয়িং স্কিন পাওয়া যায় তবে ক্ষতি কী!

রইল লেবু ব্যবহার করে গ্লোয়িং স্কিনের ২টি উপায়। সেই সঙ্গে জেনে নিন লেবু কীভাবে কাজ করে ত্বকে।

লেবুর উপকারিতা

ভিটামিন সি আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও রোগ নিরাময় ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। স্বাস্থ্যের জন্য এটা যেমন উপকারী ঠিক তেমনি স্কিনে ব্রণ, বলিরেখা বা অন্য কোনও সমস্যা হলেও ভিটামিন সি খুব দ্রুত সেটা নিরাময় করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন রোদে পুড়ে স্কিনে তৈরি হয় প্রচুর র‍্যাডিকেল। আস্তে আস্তে আমাদের মুখে পড়ে যায় বয়সের ছাপ। লেবুর রসে আছে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট, যা এই র‍্যাডিকেল থেকে ত্বককে রক্ষা করে। তাই লেবুর রস স্কিনের রিঙ্কলস, ফাইন লাইন্স বা বলিরেখার সঙ্গে লড়াই করে স্কিনকে রাখে প্লাম্প আর স্বাস্থ্যকর।

এই কারণে গ্লোয়িং স্কিনের জন্য ভরসা রাখতে পারেন ঘরোয়া প্যাকে।

১. লেবু ও আলুর রস

একটি আলুর অর্ধেক গ্রেট করে নিতে হবে। এরপর সেই আলু থেঁতো করে নিয়ে রস বের করে নিতে হবে। এর সঙ্গে মিশিয়ে নিতে হবে ৩/৪ ফোঁটা লেবুর রস। এবার এই মিশ্রনটি পুরো মুখে ভাল করে লাগিয়ে রেখে দিতে হবে, ১০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়াও আলু ডার্ক সার্কেল দূর করতে সাহায্য করে। স্কিনের অন্যান্য সমস্যা যেমন- ব্রণ, পিগমেন্টেশন, কালচে দাগ এগুলো দূর করতেও কিন্তু আলুর জুড়ি নেই!

২. টমেটো ও লেবুর রস

একটা টমেটো ব্লেন্ডারে ক্রাশ করে পিউরি বানিয়ে নিতে হবে। এর সঙ্গে ২ চা চামচ লেবুর রস মিশিয় প্যাক বানিয়ে নিন। এই মাস্কটি মুখ, গলা এমনকি হাত পায়ে পুরু করে লাগাতে পারেন। টমেটো কিন্তু প্রাকৃতিক ব্লিচিং এজেন্ট। তাই এটি আপনার রোদে ট্যান পড়া স্কিনকে খুব সহজেই আগের টোনে ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে। সেই সঙ্গে স্কিনে এনে দেবে উজ্জ্বলতা।

তাহলে দেখলেন তো স্বাস্থ্যকর উজ্জ্বল স্কিন পেতে কিন্তু খুব বেশি কিছু প্রয়োজন নেই। দরকার একটু যত্ন আর একটা পুষ্টিকর ডায়েট। বলে রাখা দরকার, ত্বকের টেক্সচার আর গ্লো ঠিক রাখতে প্রতিদিন যোগব্যায়াম আর প্রচুর পরিমানে জল খাওয়া কিন্তু খুব জরুরি! হাইড্রেশন ঠিকঠাক হলে ত্বক এমনি গ্লো করে, আর ত্বকের ভেতরে থাকা মৃত কোষগুলো বেরিয়ে যায়।

You might also like