Latest News

পুজোয় বিরিয়ানি-চাইনিজ, স্ট্রিড ফুড চলবেই, গ্যাস-অম্বল-বুকজ্বালা থেকে রেহাই পেতে কী করবেন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পাড়ায় পাড়ায় দুর্গাপুজো, ঘরে ঘরে পেট পুজো ! হ্যাঁ, এটাই বাস্তবিক। পুজো মানেই ঠাকুর দেখা রাত-দিন, ঘরে বাইরে খাওয়া প্রতিদিন। ফল ভোগান্তি (Acidity)। পুজোয় কটাদিনতো ভালোমন্দ খেতেই হবে- তা ঘরেই হোক বা রেস্তোরাঁয়।  

ঘরের তৈরি লুচি আলুর দম দিয়ে শুরু প্রাতরাশ। সাথে পনিরের সব্জিও থাকতে পারে। দুপুরে হরেক রকম মাছের আইটেম তো আছেই । ভেটকি পাতুড়ি বা সর্ষে ইলিশ কার না মন কারে ? ইউটিউব দেখে দেখে তো আজ ঘরে ঘরে ফাইভ স্টার শেফ! তাদের রান্নার মেনু কিছু কম নয়। মটন বা চিকেন বিরিয়ানি হলে তো কথাই নেই।

Image - পুজোয় বিরিয়ানি-চাইনিজ, স্ট্রিড ফুড চলবেই, গ্যাস-অম্বল-বুকজ্বালা থেকে রেহাই পেতে কী করবেন

সন্ধে বা রাতে একদম সব বাইরের খাবার চাইই চাই।  ফাস্টফুডের মধ্যে রয়েছে এগ রোল, চিকেন রোল বা এগ চিকেন রোলের চাহিদাও কিছু কম নয়। ফিস ফ্রাই- কফির সঙ্গে বলুন তো কেমন লাগে?  প্রাণের বিরিয়ানির হাতছানি তো রয়েছেই। চিকেন বা মটন চাপ অবশ্যই থাকবে সাথে। থাকবে আপনার রসনা তৃপ্তিতে।  কষা মাংসের সাথে লাচ্চা পড়টা বা তন্দুর রুটি এক দারুন তৃপ্তিদায়ক কম্বিনেশন বাইরে খাওয়ায়।

চাইনিজ ডিস তো আমাদের সবারই  প্রথম পছন্দ। চাইনিজ ডিসের মধ্যে রয়েছে চাউমিন, মিক্সড ফ্রায়েড রাইস, কুন পাও চিকেন ও বিভিন্ন স্যুপ ইত্যাদি যা  বলতে গেলে লম্বা লিস্ট হয়ে যাবে।

আসল কথায় আসা যাক। যা অভ্যাস নেই হামেশা খেয়ে, পেটে সইবে তো এই অনিয়ম ?  না খাবারের সঠিক সময় না খাবার মেনু – কিছুই তো নিয়ম করে হচ্ছে না ? একদিনের খাওয়া পুরো পুজো মাটি হয়ে যাবে নাতো? মুক্তি কোথায় গ্যাস অম্বল (Acidity) থেকে ? আছে, আছে অরিও ফার্মার গ্যাসানল (Gassanol), ৫০ বছর ধরেই রয়েছে গ্যাস অম্বল, গলা বুকজ্বালা ইত্যাদি উপশমে আপনাদের পাশে। শুধু সঙ্গে রাখুন আর ঘুরুন ফিরুন মনের আনন্দে খেয়ে যান।

তবে খাবার খাওয়ায় কিছু নিয়ম মেনে চলুন যা আমরা মা  মাসিদের মুখে শুনে এসেছি বরাবর। স্পাইসি খাবার খেয়েই জল খাবেন না। সম্ভব হলে কিছুটা সময় পরে জল খান। তাতে গ্যাস অম্বলের  চান্স কম থাকে। পেটভরে  মাছ – মাংস খাবার পর শরবত, কোল ড্রিঙ্কস না খাওয়া বুদ্ধিমানের কাজ। এতেও এড়ান যায় গ্যাস অম্বল হবার সম্ভাবনা। লোভ সামলাতে পারলেন না, ভাজাভুজি  আপনি খেয়ে নিলেন। হতেই পারে। কোলড্রিংক্স-এর  বদলে বরং লেবুর জল খেয়ে নিন অম্বল থেকে বাঁচতে। চিরাচরিত অভ্যাসমত অ্যাসিডিটি  কমাতে মুড়ি মুড়কির মতন ট্যাবলেট, ক্যাপসুল খাবেন না, তাতে ভবিষ্যতে ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে।  ভরসা রাখুন গ্যাসানলের ওপর। ৫০ বছরের অভিজ্ঞতায় তৈরি এই গ্যাসানল হলপ করে বলা যায় মুক্তি পাবেন গ্যাস অম্বল বুক জ্বালা, অ্যালসার  থেকে। আর একটা কথা মনে রাখবেন – পুজোর কটা দিন ঘোরার আনন্দের সাথে ভুরিভোজটাতেই মন বেশি করে দিন, ইচ্ছে মতন খান। এই ক’দিন খেয়ে সুস্থ ভাবে থাকতে হলে সিগারেট – অ্যালকোহলে অবশ্যই লাগাম টানতে হবে।

You might also like