Latest News

আপনি কি সেক্স পজিটিভ! কীভাবে বুঝবেন?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: যুগ বদলেছে, পৃথিবীতেও এসেছে আমূল পরিবর্তন। তবুও এই একবিংশ শতাব্দীর আধুনিকতার পাশে ফিকে হয়ে আছে যৌনতা (sex) ও যৌন পরিচয় সংক্রান্ত আলোচনা। এ নিয়ে খোলামেলা কথা বলতে এখনও যথেষ্ট সংকোচ আমাদের দেশে।

এমনই সময়ে সামনে আসছে এক নতুন শব্দ, ‘সেক্স পজিটিভ’ (Sex Positive)। শব্দটা শুনতে চমক লাগলেও, আদতে কিন্তু এটি যৌনতায় লিপ্ত হওয়া সংক্রান্ত কোনও বিষয় নয়। সেক্স পজিটিভ বলতে বোঝায়, যৌনতামনস্ক। অর্থাৎ এমন একটা উদার মনোভাব, যেখানে অন্যের যৌনতা বা যৌনরুচি সম্পর্কে ঠিক-ভুলের বিচার সমাজ করে না। গতানুগতিক ও যাবতীয় চাপিয়ে দেওয়া নিয়মের বাইরে এই ধারণা যৌনতার বিষয়ে মুক্তমনা হওয়ার ইঙ্গিত করে। বিদেশের মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা বিগত কয়েক বছর ধরে এই বিষয় নিয়ে যথেষ্ট সরব হয়েছেন।Has The Sex Positivity Movement Peaked?

আপনি কি সেক্স পজিটিভ?

সেক্স পজিটিভ বা নেগেটিভ হওয়া কিন্তু কোনও শারীরিক পরিচয় নয়। এটা সম্পূর্ণভাবে একজনের চিন্তাধারার উপর নির্ভরশীল। এই বিষয়গুলো যদি আপনার সঙ্গেও মেলে, তবে ধরে নেওয়া যায় আপনি একজন সেক্স পজিটিভ মানুষ।

  • যৌনতা এবং যৌন অভিব্যক্তি বিষয়ে আপনি যদি খোলামেলা ও উদারমনা হন
  • অন্যের যৌনতা বা যৌনরুচি প্রসঙ্গে যদি আপনার বিচারহীন মনোভাব থাকে
  • আপনি যদি সকল প্রকার লিঙ্গ পরিচয়, লিঙ্গ অভিব্যক্তি বা সেক্স ওরিয়েন্টেশনকে সমর্থন করেন ও গ্রহণযোগ্য মনে করেন
  • যে কোনও প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের যৌনতা বা যৌন অভিব্যক্তি যদি আপনার বিরক্তের কারণ হয়ে না দাঁড়ায়
  • যৌনতা এবং যৌন অভিব্যক্তির স্বাধীনতা প্রত্যেকের থাকা উচিত বলে যদি আপনি মনে করেনA woman's right to say 'meh': being sex positive won't guarantee you an orgasm | Sex | The Guardian

‘সেক্স পজিটিভ’ ধারণাটি একবিংশ শতাব্দীতে প্রাসঙ্গিক হলেও এর শুরু কিন্তু ১৯২০ সাল থেকেই। এমনকি ৬০-৭০ এর দশকে নারীবাদী, এলজিবিটিকিউ গোষ্ঠী এবং সামাজিক আন্দোলনের সঙ্গেও সেক্স পজিটিভ ধারণার যোগাযোগ ছিল।

নারীর অধিকার এবং লিঙ্গ পরিচয় বা যৌনতার মতো বিষয়ে আমাদের প্রত্যেকের ভিন্ন ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা গেছে, এই দৃষ্টিভঙ্গির উৎস ধর্ম অভ্যাস ও সমাজ থেকেই উঠে আসে। নিজের নিজের ধর্মে যেমন নিদর্শন রয়েছে বা সমাজে আমরা যা দেখে অভ্যস্ত, তার বাইরে আমরা বিষয়গুলো নিয়ে সাধারণত ভাবতে পারি না।Sex gender and sexuality - Positive Peersএই অবস্থায় সেক্স পজিটিভিটি আমাদের ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গিতে যৌনতাকে ভাবতে শেখায়, উদারতার শিক্ষা দেয়। এই শিক্ষা এও শেখায়, শুধু যৌনাঙ্গের পরিচয়ই লিঙ্গ নির্ধারণ করতে পারে না।

যৌন সক্রিয়তা মানেই কিন্তু সেক্স পজিটিভ নয়!

সেক্স পজিটিভ হওয়ার জন্য যৌনসঙ্গমের কোনও প্রয়োজন নেই। কারও সঙ্গে সেক্স করলেই যে সেক্স পজিটিভ হওয়া যায়, তা নয়। সেক্স পজিটিভ হতে গেলে নিজের বা অন্যের যৌন পরিচয়কে স্বীকৃতি দিতে হয়। একটা মানুষের মানসিক চেতনা কেমন, কীভাবে সে অন্য মানুষদের সঙ্গে মেলামেশা করে, কীভাবে সে প্রিয় মানুষের প্রতি ভালবাসা প্রকাশ করে, সেগুলো বিচার করেও লিঙ্গ নির্ধারণ হতে পারে, এ কথা ভুলে গেলে চলবে না।How to Have Safer "Bareback" Sex Without a Condom: 13 Tips

সেক্স পজিটিভ ও সেক্স নেগেটিভ

সমাজের যে সমস্ত মানুষ তাঁদের ধর্মীয় ও সামাজিক শিক্ষার কারণে প্রথাগত যৌনতার বাইরে অন্য কিছু মেনে নিতে পারেন না, কুদৃষ্টি দিয়ে অন্য রকম যৌনভাবাপন্ন মানুষের নিন্দে করেন, অন্যের যৌন স্বাধীনতা মানতে পারেন না, তাঁরাই সেক্স নেগেটিভ।

সেক্স নেগেটিভ কারা?

  • এসব মানুষ ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক ভাবে গোঁড়া হন। অন্য কিছু চট করে গ্রহণ করতে চান না
  • অন্যের সেক্সুয়ালিটিকে অসম্মান করেন, বিদ্রুপ করেন
  • এলজিবিটিকিউ মানুষদের নিয়ে পরিহাস করেন, কখনও কখনও তাঁদের মানসিক রোগী বলেও প্রতিপন্ন করেনThe Sex Negative Society

বস্তুত, সাধারণ মানুষের একটা বড় অংশের ক্ষেত্রে যৌনতা বা সেক্স কেবল সন্তান উৎপাদনের উপায় হিসেবেই সীমাবদ্ধ। তাই দুটো একই লিঙ্গের মানুষের যৌনতা এখানে মান্যতা পায় না। কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না, যৌনাঙ্গের বাইরেও মস্তিষ্ক আমাদের আবেগ, যৌন পরিচয় বা যৌন সম্পর্কের ওপর ছড়ি ঘোরাতে পারে। তাই শুধুমাত্র যৌনাঙ্গ দিয়েই একজনের লিঙ্গ পরিচয় বেঁধে দেওয়া ঠিক নয়, অন্তত এমনটাই মনে করেন দেশ বিদেশের মনোবিদ ও সমাজকর্মীরা।

যৌনতা ও লিঙ্গ পরিচয়ের ভিন্নতার জন্য প্রচুর মানুষ হীনম্মন্যতায় ভোগেন। সেক্স নেগেটিভ মানুষদের বিদ্রুপ-পরিহাসে তাঁরা অবসাদের শিকার হন। প্রতি বছর এমন বহু মানুষ নিজেকে সমাজের কাছে গ্ৰহণযোগ্য না করতে পেরে অবশেষে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। এর জন্য আমাদের সমাজে আরও বেশি সেক্স পজিটিভ মানুষ প্রয়োজন। যৌনতা সম্পর্কে চিরাচরিত প্রথাগত ধারণার পুনর্বিবেচনা করা প্রয়োজন। এক-দুদিনেই হয়তো এতদিনের ধারণা রাতারাতি হঠাৎ বদলে যাবে না। তবে বিচার বুদ্ধি দিয়ে ভাবলে ধীরে ধীরে এসব বদ্ধমূল ধারণার পরিবর্তন আসতে পারে।Inflammatory Arthritis and a Healthy Sex Life -- CreakyJointsরাস্তাঘাটে বা কর্মস্থলে সমকামী বা ট্রান্সজেন্ডর নিয়ে মজা করতে দেখলে প্রতিবাদ করা প্রয়োজন। প্রয়োজন সেক্স নেগেটিভ মানুষদের আরও বেশি করে বোঝানো, যে চিরাচরিতের বাইরে পৃথক কোনও সেক্সুয়াল ওরিয়েন্টেশন থাকা অপরাধ নয়। যৌনতা বিষয়ে উদার হলে তা অনেক মানুষেরই মঙ্গল। যৌনতা বিষয়ে লুকোচুরির থেকেও খোলামেলা আলোচনাই বেশি কাম্য।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like