Latest News

কালার করা চুল যত্ন নেবেন কীভাবে? জেনে নিন সহজ কিছু নিয়ম

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একরাশ কালো ঘন চুল কার না ভাল লাগে? যদিও এখন কালো চুল অনেকেই পছন্দ করছেন না। চুল রাঙাচ্ছেন সবুজ, লাল, নীল, সোনালি রঙে। একে কালার করা চুল, তায় শীতকাল। এ সময় বাতাস এমনিই শুষ্ক রুক্ষ করে দেয় চুলকে। তার ওপর রাসায়নিক প্রয়োগ করে চুলে রঙ করলে কিছুটা ক্ষতি তো হয়েই থাকে। চুল একটু বেশি রুক্ষও হয়ে পড়ে। এদিকে এই করোনা আবহে চুল মসৃণ ও ঝকঝকে করার জন্য তো বার বার পার্লার যাওয়াটাও ঝুঁকিপূর্ণ। তাহলে এখন উপায় কী? হতাশ হওয়ার কিছু নেই। ঘরোয়া টিপস আছে। আপাতত সেগুলোই মেনে চলুন না হয়…

How Do You Keep Dyed Hair Healthy? | Better Not Younger

 

নিয়মিত চুলে তেল দিন

চুলে তেল লাগানোয় অনীহা এখন খুব দেখা যায়। তবে তেল আমাদের চুলে প্রয়োজনীয় পুষ্টি জোগাতে ভীষন কার্যকরী উপাদান। সপ্তাহে মাত্র ২ থেকে ৩ দিন রাতে নারকেল তেল বা অলিভ অয়েল যদি মাথায় ভাল করে মালিশ করা যায়, তাহলে এই শীতেও চুল খুব বেশি রুক্ষ হয়ে পড়ে না। তেল চুলের আর্দ্রতাকে লক করে রাখে, তাই অন্তত এই সময়টুকু চুলে একটু তেল দিন।

How To Take Care Of Colored Hair? – SkinKraft

তৈরি করুন হেয়ার প্যাক

হেয়ার স্পা করতে না পারলেও স্পায়ের মতোই উপকার মিলতে পারে ঘরোয়া টোটকায়।
চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী টক দই, মধু আর পাকা কলার মিশ্রণ তৈরি করুন। চুলে লাগিয়ে আধ থেকে এক ঘণ্টা পর্যন্ত ছেড়ে দিন। তারপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন করতে পারলেই দেখবেন চুলের স্বাস্থ্য ফিরে এসেছে। রুক্ষতা দূর হয়েছে।
ডিমের সাদা আর টক দই দিয়েও হেয়ার প্যাক বানাতে পারেন।

How to keep colored hair healthy - Yes Madam Blog

 

রোজ শ্যাম্পু করবেন না

শ্যাম্পু করলে চুলের ময়লা, ধুলো, বালি দূর হয়। তবে এই শীতের শুস্ক দিনে রোজ শ্যাম্পু করলে চুল তার স্বাভাবিক আর্দ্রতা হারাতে পারে। তাই এখন একেবারেই রোজ শ্যাম্পু নয়। খুব প্রয়োজন হলে অন্তত ১ দিন ছাড়া ছাড়া করুন। চেষ্টা করুন, এ সময়টুকু মাইল্ড শ্যাম্পু ব্যবহার করতে।

 

গরম জল মাথায় ঢালবেন না

শীতে কনকনে ঠান্ডা জলে প্রায় কেউই স্নান করেন না। সকলেই জল গরম করে তবেই স্নানঘরে যান। তবে স্নানের গরম জল গায়ে ঢাললেও মাথায় বা চুলে ঢালবেন না। এতে চুলের রঙ তো নষ্ট হয়ই, সঙ্গে চুল আরও নিষ্প্রাণ হয়ে যায়।

10 Foolproof tips to take care of your dyed hair

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না

শীতে কিন্তু চুল শুকোতে বেশি সময় লাগে না। খুব কম সময়েই শুকিয়ে যায়। স্নানের পর ভাল করে চুল মুছে হালকা রোদে দাঁড়ালেই কেল্লাফতে। তা বলে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করবেন না। চুলে ব্লো-ড্রাই করলে অতিরিক্ত তাপে চুল প্রাণ হারাতে পারে। যদি একান্তই ব্লো-ড্রাই করতে হয়, তবে হেয়ার ড্রায়ারের তাপমাত্রা ন্যূনতম রাখুন।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা সুখপাঠ               

You might also like