Latest News

বাংলার হেঁশেল- ছুটির দিনের প্রাতরাশ

শমিতা হালদার

পরোটা! নাম শুনলেই জিভে জল চলে আসে! নরম মুচমুচে তেকোনা পরোটা যে কি লোভনীয় তা বোধহয় যাঁরা খেয়েছেন তারাই জানেন। আর পরোটা খাননি এমন বাঙালি এই দুনিয়াতে আছে কি না তা আমার সন্দেহ আছে! একটু লাল করে ভাজা নরম তুলতুলে পরোটা সাথে সাদা আলুর তরকারি পাঁচফোড়ন দিয়ে। যে কোনও মহার্ঘ্য খাবারের সঙ্গে টেক্কা দিতে পারে এই কম্বিনেশন। বাঙালি পরোটা সাধারণত ত্রিকোণ হয়, তবে হাত বদলে তা বিভিন্ন আকার নিতে পারে। আজ কথা বলব বাঙালির সেই অন্তত নস্টালজিয়া তেকোনা পরোটা নিয়ে…ত্রিকোণ পরোটা
উপকরণ-
 ময়দা দু কাপ, নুন পরিমাণ মতো, আর ময়ানের জন্য ১ চামচ ঘি, জল।
প্রণালী- ময়দাতে নুন, ঘি দিয়ে হাতের সাহায্যে কয়েক মিনিট মাখতে হবে। বেশ ঝুরঝুরে হলে জল দিয়ে মেখে, একটা ভেজা কাপড়ে মুড়ে ৩০ মিনিট রাখতে হবে।
তারপর ময়দা ছড়িয়ে তিন কোনা করে বেলে নিয়ে ফ্রাইপ্যানে সেঁকে নিন। দুপিঠ ভালো করে সেঁকে, তেল বা ঘি চামচের সাহায্যে পরোটার গায়ে মাখিয়ে ভাজতে হবে। তেকোনা পরোটা গরম গরম পরিবেশন করুন। সাথে উপযুক্ত সঙ্গত দিতে বানিয়ে ফেলুন সাদা আলুর গা-মাখা চচ্চড়ি।

সাদা আলুর চচ্চড়ি
আলু লম্বা করে কেটে জলে ভিজিয়ে রাখুন।
সরষের তেল গরম করে তাতে কালোজিরে, অল্প হিং আর একটা শুকনো লংকা ফোরন দিন। এবার তেলে আলু ছেড়ে মিনিট ২ নেড়েচেড়ে নিয়ে জল দিন। তারপর তাতে দিন পরিমাণ মতো নুন আর অল্প চিন। এ রান্নায় হলুদ পরবে না। আলু কিছুটা সেদ্ধ হলে চেরা লংকা দিতে হবে। জল মরে মোটামুটি মাখোমাখো হলে নামিয়ে ফেলুন।

মটরশুঁটির কচুরিশীতের বাজার ভরে থাকে চোখজুড়োনো সবুজ মটরশুঁটিতে। স্বাদ বদল করতে শীতের উইকেন্ডে পরোটার বদলে ব্রেকফাস্টে বানিয়ে ফেলুন মটরশুঁটির কচুরি। শীতের সকাল জমিয়ে দিতে আর কী চাই! আর সঙ্গে যদি থাকে নতুন আলুর ঝাল ঝাল কষা তরকারি, তাহলে তো কথাই নেই।
প্রণালী- মটরশুঁটি হাল্কা ভাপিয়ে, লংকা আর আদা দিয়ে মিক্সারে পেস্ট করে নিতে হবে।
পরোটার মতো করেই ময়দা মেখে রাখতে হবে।
এবার একটা কড়াইতে তেল গরম করে প্রথমের ফোড়ন দিতে হবে হিং। এবার পেস্ট করে রাখা মটরশুঁটি ছেড়ে নুন চিনি দিয়ে কষাতে হবে। জল মরে মিশ্রণ মোটামুটি শুকনো হয়ে এলে কড়াই থেকে নামিয়ে ঠান্ডা করে ফ্রিজে রাখতে হবে ২-৩ ঘণ্টা।
তারপর লুচির মতো গুটি করে, তাতে মটরশুঁটির পুর ভরে, বেলে নিয়ে ভাজলেই গরমাগরম কচুরি রেডি।

লেখিকা গুরগাঁও-এর বাসিন্দা, সাহিত্য নিয়ে পড়াশোনা করেও পেশায় একজন অনলাইন কুকিং ট্রেনার এবং হোম শেফ। যুক্ত আছেন রান্না সংক্রান্ত একাধিক ব্লগের সঙ্গে। পৃথিবীর নানান প্রান্তে ছড়িয়ে আছে তাঁর ছাত্রছাত্রী। রান্না ছাড়াও দুঃস্থ বাচ্চা এবং মহিলাদের নিয়ে কাজ করেন। যুক্ত হয়েছেন সমাজকল্যাণমূলক নানা কাজকর্মের সঙ্গেও।

 

https://three.pb.1wp.in/life_style/food/opinion-blog-about-easy-and-tasty-two-egg-recipes/

You might also like