Latest News

এয়োস্ত্রীর সিঁদুরখেলা আজ যেন বিভেদ-ভোলা মিলনমেলা

সোমা লাহিড়ী

যবে থেকে বাংলার প্রতিপত্তিশালী রাজা-মহারাজা আর জমিদারবাড়িতে দুর্গাপুজো (Durga Pujo 2022) শুরু হয়েছে তবে থেকেই বিসর্জনের আগে দেবীবরণে মায়ের সিঁথিতে সিঁদুর পরানোর রীতি দেখা গেছে। সেই সময়ের সংবাদপত্রে এবং বিভিন্ন লেখকের বর্ণনায় এই তথ্য আমরা পেয়েছি। কিন্তু সিঁদুরখেলা ঠিক কবে কীভাবে শুরু হল?

এয়োস্ত্রীর রীতি পালনের ফাঁকে মজা তামাশা থেকেই কি সিঁদুরখেলার শুরু ?

বনেদিবাড়ির পুজোয় বিসর্জনের আগে মাকে বরণ করার পর মায়ের সিঁথিতে সিঁদুর পরাতেন এয়োস্ত্রীরা। মায়ের সিঁথিতে টকটকে লাল সিঁদুর পরানোর পর শুরু হত একে অপরকে সিঁদুর পরানোর পালা। বাড়ির মেয়ে বউরা একে অপরের সিঁথিতে সিঁদুর পরাতেন, নোয়া ও শাঁখা পলাতে ছোঁয়াতেন সিঁদুর। এই রীতি রেওয়াজ পালনের মাঝেই হয়তো ছোট জা মজা করে বড় জায়ের গালে লাগিয়ে দিলেন সিঁদুর। ব্যস শুরু হয়ে যেত খেলা।

Image - এয়োস্ত্রীর সিঁদুরখেলা আজ যেন বিভেদ-ভোলা মিলনমেলা

ঝগড়া বিভেদ ভুলে ননদিনী রায়বাঘিনীও দৌড়তেন ভাইয়ের বউদের পেছনে সিঁদুরের ডালি হাতে। সে এক হইহই আনন্দ। ধীরে ধীরে এই আনন্দ ছড়িয়ে পড়ল মহিলা মহলে। শুধু আত্মীয় স্বজনই নন, পাড়া প্রতিবেশীরাও যোগ দিতে শুরু করলেন এই সিঁদুর খেলায়।

বাড়ি থেকে বারোয়ারিতে ছড়িয়ে পড়ল সিঁদুরের লালিমা

টকটকে লাল রঙের মহিমা এমনই যে বাড়ির পুজো থেকে এই সিঁদুরের উৎসব ছড়িয়ে পড়ল বারোয়ারি পুজোমণ্ডপেও। দেবী দুর্গাকে বরণ করার জন্য এখন প্রতিটি পুজোমণ্ডপে অন্তহীন ভিড়। আর এই ভিড়ের মূল আকর্ষণ কিন্তু সিঁদুর খেলা। চেনা অচেনা, ধনী-গরীব নির্বিশেষে সবাই সবাইকে সিঁথিতে সিঁদুর পরাচ্ছেন, গালে কপালে এঁকে দিচ্ছেন সোহাগ চিহ্ন। এ যেন ভালবাসার রঙে মেতে ওঠা।

এখন আর শুধু এয়োস্ত্রীদের মধ্যে এ খেলা সীমাবদ্ধ নেই। সীমানা ছাড়িয়ে ছড়িয়ে পড়েছে সব বয়েসের সবার মাঝে। এ প্রজন্মের মেয়েরাও এদিন ওয়েস্টার্ন ড্রেস সরিয়ে রেখে লাল পাড় শাড়ি আর সোনালি গয়নায় সেজে সামিল হচ্ছেন সিঁদুরখেলায়। সঙ্গ দিচ্ছেন পাঞ্জাবি সাজে সজ্জিত ছেলেরা। বেশ লাগছে দুর্গোৎসবের শেষ লগ্নের এই সিঁদুর খেলা। এ যেন বিভেদ-ভোলা মিলন মেলা।

Image - এয়োস্ত্রীর সিঁদুরখেলা আজ যেন বিভেদ-ভোলা মিলনমেলা

আজ সবার রঙে রঙ মেশাতে হবে

বেশ কয়েক বছর ধরে কলকাতা ও শহরতলির বড় বড় পুজো কমিটিগুলো সিঁদুর খেলাকে বিশেষ ইভেন্ট হিসেবে তুলে ধরছে। শুধু ধর্ম-বর্ণ নয়, রাজনীতির রঙও মিলেমিশে একাকার হয়ে যাচ্ছে সিঁদুরের লালে। সবুজ, কমলা, নীল, হলুদ, বেগুনি ,আকাশি— সব রং যেন ভালবাসার লালে, আবেগের লালে, আনন্দের লালে সমর্পণ করছে নিজেদের। মুছে যাচ্ছে গ্লানি, মুছে যাচ্ছে জরা। অগ্নিস্নানে শুচি হচ্ছে ধরা…

আসছে বছর আবার এসো মা।

You might also like