Latest News

ক্যালোরি বাড়াচ্ছে আম? দেখে নিন কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বৈশাখ এসে গেলো। গরমের দাবদাহ যেমন আছে তেমনই আছে ফলের রাজা আমের রকমারি ভাণ্ডার। কিন্তু এই নিয়ে রয়েছে হাজার প্রশ্ন। যাঁরা ওজন নিয়ে সচেতন, তাঁরা মনে করেন আম খেলে ওজন বাড়তে পারে। আদতে কি সত্যি? কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা, জেনে নিন…

আম খেলে কি রক্তে শর্করা বাড়ে এই নিয়ে নানা প্রশ্ন মনে উঠতেই পারে! আমে যথেষ্ট শর্করা আছে। ডায়াবেটিস রোগীদের শর্করা পরিমাপ করে খাওয়া উচিত। আমের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স মাঝারি মাত্রার, ৬০ থেকে ৮৫। বেশি আম খেলে তাই রক্তে শর্করা বেড়ে যেতে পারে। পাকা মিষ্টি আম একজন ডায়াবিটিস রোগী দৈনিক ৩০ থেকে ৪০ গ্রাম খেতে পারেন। মানে প্রতিদিন একটি ছোট আম বা অর্ধেক মাঝারি আম খাওয়া যাবে। অন্যান্য শর্করা যেমন ভাত কমিয়ে দিয়ে এ সময় খাদ্যতালিকায় আম যুক্ত করা যায়।

তবে আমে রয়েছে অনেকটা ক্যালোরি। তাই যাঁরা ক্যালরি মেপে খান বা ডায়েট করেন, তাঁরা দৈনিক খাদ্যতালিকা থেকে আমের ক্যালরি পরিমাণ খাবার বাদ দিতে পারেন। এতে ওজন বাড়ার আশঙ্কা থাকে না। আম খেলে দ্রুত পেট ভরে ঠিকই, কিন্তু এটি দ্রুত হজম ও শোষণও হয়ে যায়। যাঁরা ডায়েট করছেন, তাঁদের আম সীমিত পরিমাণে খেতে হবে। বিশেষজ্ঞদের কথায়, আমের শরবত, আইস ক্রিম, আমের চাটনি খেলে অবশ্যই মেদ বাড়বে। কারণ এতে অতিরিক্ত চিনি যোগ করা হয়। কিন্তু টাটকা, তাজা আম খেলে এমন সমস্যা কম।

পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম হৃদ্‌রোগীদের জন্য উপকারি। তাই ডায়াবেটিস বা কিডনি রোগ না থাকলে হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে আম খাওয়া ভাল। এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া ভাল।

You might also like