সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩

ভোটে আপনারা মনপ্রাণ দিয়ে কাজ করেননি, কংগ্রেস কর্মীদের তিরস্কার প্রিয়ঙ্কার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : যারা দলের কাজে ফাঁকি দিয়েছে, তাদের নামগুলো জানতে পারব শীঘ্রই। এই বলে রায়বরেলিতে কংগ্রেস কর্মীদের তিরস্কার করলেন দলের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়ঙ্কা গান্ধী। এবার আশা করা হয়েছিল উরত্তরপ্রদেশে ভালো ফল করবে প্রিয়ঙ্কার দল। বাস্তবে পেয়েছে মাত্র একটি আসন। রায়বরেলি থেকে জিতেছেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী। এমনকী অমেঠী আসনে দলের সভাপতি রাহুল গান্ধীও পরাজিত হয়েছেন।

বুধবার সনিয়া রায়বরেলিতে ভোটারদের ধন্যবাদ জানাতে গিয়েছিলেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রিয়ঙ্কা। সেখানে তিনি কংগ্রেস কর্মীদের বলেন, আমি ভাষণ দিতে চাইনি। কিন্তু আপনারা আমাকে কিছু বলতে অনুরোধ করেছেন। আমাকে যদি বলতেই হয়, সত্যি কথাই বলব। সত্যি কথাটা হল, রায়বরেলিতে কংগ্রেস জিতেছে সনিয়া গান্ধী ও স্থানীয় মানুষের জন্য।

ভোটের আগে উত্তরপ্রদেশে টানা প্রচার চালিয়েছিলেন প্রিয়ঙ্কা। রায়বরেলি বা অমেঠী বাদে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কেন্দ্র বারাণসীতেও একাধিকবার প্রচারে গিয়েছেন। তিনি বুধবার বলেন, কারা দলের জন্য খেটেছে, সেকথা সকলেই জানে। কারা মনপ্রাণ দিয়ে কাজ করেনি, তাদের নামগুলো জানতে পারব শীঘ্রই।

প্রধানমন্ত্রী অমিত শাহ ও বিজেপির সভাপতি অমিত শাহের নেতৃত্বে বিজেপি এবার লোকসভা নির্বাচনে বিপুল জয় অর্জন করেছে। তারা একাই জিতেছে ৩০৩ টি আসন। এনডিএ-র সব শরিক মিলে পেয়েছে ৩৫২ টি আসন। বিপরীতে কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র ৫২ টি। ১৮ টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে তারা একটি আসনও পায়নি।

বুধবার সনিয়া বিজেপির সমালোচনা করে বলেন, ক্ষমতায় থাকার জন্য তারা ভব্যতার সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। দেশের ভোটপ্রক্রিয়া নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে। তাঁর কথায়, আমি মনে করি, আমাদের দেশের সবচেয়ে বড় দুর্ভাগ্য হল, ক্ষমতায় থাকার জন্য বিজেপি ভব্যতার সীমা লঙ্ঘন করছে। পরে তিনি বলেন, গত কয়েক বছরে নির্বাচনের প্রক্রিয়া নিয়েই নানা প্রশ্ন উঠেছে।

মে মাসের শুরুতে সনিয়া বলেছিলেন, দেশের মূল নীতিগুলি রক্ষার জন্য তিনি সবরকম আত্মত্যাগে তৈরি। বুধবার তিনি রায়বরেলিতে বলেন, আমি আপনাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম, দেশের মূল নীতিগুলি রক্ষা করব। কংগ্রেসে আমাদের আগের প্রজন্মের নেতারা যে ঐতিহ্য সৃষ্টি করে গিয়েছেন, তা রক্ষা করব। আমি সেই প্রতিশ্রুতি পালন করতে তৈরি।

এরপর তিনি বলেন, আমি জানি, সামনে খুব কঠিন দিন আসছে। কিন্তু আমি নিশ্চিত, আপনাদের সমর্থন পেলে কংগ্রেস প্রতিটি চ্যালেঞ্জেরই মোকাবিলা করতে পারবে।

Comments are closed.