বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১
TheWall
TheWall

কোর্টের দরজা বন্ধ, গায়ে কেরোসিন ঢেলে, ছাদ থেকে লাফ দিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার হুমকি আইনজীবীদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : মঙ্গলবার নজিরবিহীন পুলিশ বিক্ষোভ দেখেছে রাজধানী দিল্লি। বুধবার পালটা আন্দোলনে নামলেন আইনজীবীরা। প্রতিটি নিম্ন আদালতের দরজা তাঁরা বন্ধ করে দিয়েছেন। এক আইনজীবী দিল্লির পুলিশ প্রধানকে আইনি নোটিশ পাঠিয়ে বলেছেন, আইনরক্ষকদের বিক্ষোভ বেআইনি। বিক্ষোভকারীদের এক সপ্তাহের মধ্যে গ্রেফতার করতে হবে।

দিল্লি হাইকোর্ট মঙ্গলবার বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান মান্নান মিশ্রকে বলেছিল, অ্যাডভোকেটদের নিয়ন্ত্রণ করুন। বুধবার চেয়ারম্যান বলেছেন, কেউ যদি হিংসার আশ্রয় নেয় তিনি ব্যবস্থা নেবেন। তবে একইসঙ্গে তিনি পুলিশের বিরুদ্ধেও মন্তব্য করেছেন। তাঁর কথায়, “পুলিশ চায় অ্যাডভোকেটদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তাদের পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হোক। তারা বিচারপতিদের নিরাপত্তা তুলে নিতে চায়। কোর্টের বিরুদ্ধে কাজ করা কারও অধিকারের মধ্যে পড়ে না।”

তিস হাজারি কোর্টে গাড়ি পার্কিং করা নিয়ে সোমবার আইনজীবীদের সঙ্গে পুলিশের গোলমাল শুরু হয়। বুধবার সেই অশান্তি তৃতীয় দিনে পড়ল। এদিন আইনজীবীরা পাতিয়ালা হাউস ও সাকেত ডিস্ট্রিক্ট কোর্টের দরজা বন্ধ করে দেন। ফলে বিচারপ্রার্থীরা আদালতে ঢুকতে পারেনি। রোহিনী জেলা আদালতে এক আইনজীবী গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন লাগানোর হুমকি দেন। আর এক আইনজীবী বহুতলের ছাদে উঠে যান। সেখান থেকে লাফ দেওয়ার হুমকি দেন।

বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আশ্বাস দেন, বৃহস্পতিবার থেকে আদালতে স্বাভাবিক কাজকর্ম হবে। একইসঙ্গে তিনি বলেন, সোমবার যে আইনজীবী এক পুলিশ কনস্টেবলকে চড় মেরেছিলেন, তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কিন্তু কনস্টেবল অ্যাডভোকেটদের ওপর গুলি চালিয়েছেন, তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

আইনজীবীদের দাবি, সোমবার তিস হাজারি কোর্টে পুলিশ তাঁদের বুক লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

Comments are closed.