শনিবার, অক্টোবর ১৯

বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যেই ছাত্রকে ছুরি, ধুন্ধুমার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : শুক্রবার কেরল বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যান্টিনে বসে গান গাইছিল একদল ছাত্র। অভিযোগ, এসএফআইয়ের কয়েকজন ছাত্র তাদের গান গাইতে বারণ করে। সেই নিয়ে শুরু হয় বচসা। তার মধ্যে ছাত্র ফেডারেশনের এক সদস্য ছুরি বার করে অখিল নামে একজনের বুকে বসিয়ে দেয়। তখন বড় ধরনের গন্ডগোল বাধে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, গোলমালের সময় এসএফআইয়ের সমর্থকরা বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট বন্ধ করে দেয়। ফলে কোনও ছাত্র অশান্তির সময় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেরোতে পারেনি।

ছুরিবিদ্ধ অখিলও এসএফআইয়ের সদস্য বলে জানা গিয়েছে। এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, ক্যান্টিনে ও তার বাইরে তর্কাতর্কি হচ্ছিল। ছাত্ররা গান গাইছিল। আচমকা এসএফআইয়ের কয়েকজন সদস্য এসে তাদের থামতে বলে। আমরা কলেজ থেকে বেরোনর চেষ্টা করছিলাম। কিন্তু কয়েকজন সিনিয়র স্টুডেন্ট এসে দরজা বন্ধ করে দেয়। তখনই অখিল ছুরিবিদ্ধ হয়।

আর এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, গোলমালের আগে বাইরে থেকে কয়েকজন বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকেছিল। তারা একসময় সেখানকার ছাত্র ছিল। এসএফআইয়ের সদস্যও ছিল। কিন্তু এখন তারা ছাত্র নয়। ছুরি মারার ঘটনায় তারাও জড়িত থাকতে পারে।

ছুরিবিদ্ধ হওয়ার পরে অখিলকে তিরুওনন্তপুরমের সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার চিকিৎসা চলছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা প্রত্যক্ষদর্শীদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে। শীঘ্র অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed.