এবার কাশ্মীরের নেতারাও একে একে ছাড়া পেতে পারেন

দ্য ওয়াল ব্যুরো : বুধবারই জম্মুর গৃহবন্দি নেতারা ছাড়া পেয়েছেন। এবার ছাড়া পেতে পারেন কাশ্মীরের রাজনৈতিক নেতারাও। জম্মু কাশ্মীরের রাজ্যপালের এক উপদেষ্টা একথা জানিয়েছেন। প্রায় ৫০ দিন ধরে রাজনীতিকদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। কিছুদিন আগেই রাজ্যপাল ঘোষণা করেছিলেন, জম্মু-কাশ্মীরে ব্লক ডেভেলপমেন্ট কাউন্সিলের নির্বাচন হবে শীঘ্র। তারপরে রাজ্যপাল সত্যপাল মালিকের উপদেষ্টা ফারুক খানকে প্রশ্ন করা হয়, এবার কি কাশ্মীরের নেতাদেরও ছেড়ে দেওয়া হবে। তিনি বলেন, প্রত্যেকের সম্পর্কে আলাদা করে আমরা বিবেচনা করব। তাঁদের একে একে মুক্তি দেওয়া হবে।

জম্মু-কাশ্মীরে প্রায় ৪০০ রাজনৈতিক নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তাঁদের মধ্যে আছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা, ওমর আবদুল্লা ও মেহবুবা মুফতি। ৫ অগস্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যসভায় ঘোষণা করেন, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করা হল। এর পরে কাশ্মীরে যাতে অশান্তি না ছড়িয়ে পড়ে সেজন্য নেতাদের গৃহবন্দি করা হয়েছিল।

একইসঙ্গে কাশ্মীরে ল্যান্ডলাইন, মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এই কড়াকড়ির বিষয়টি আন্তর্জাতিক মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। রাষ্ট্রপুঞ্জ এবং আমেরিকা কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে। কিন্তু কেন্দ্রীয় প্রশাসন স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, কড়াকড়ি উঠবে কিনা নির্ভর করছে স্থানীয় প্রশাসনের ওপরে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ধীরে ধীরে কাশ্মীরে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসছে। কোনও কোনও জায়গায় এখনও নিষেধাজ্ঞা বজায় আছে বটে কিন্তু শ্রীনগরের রাস্তায় যথেষ্ট সংখ্যক যানবাহন চলাচল করতে দেখা যাচ্ছে। যদিও এখনও বেশিরভাগ বাজার খোলেনি। স্কুলও বন্ধ।

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.