শনিবার, মার্চ ২৩

রাগের বশে কাউকে ঠাট্টা করে, আদতে কিছুই হাসিল করা যায় না! আক্রমণের জবাব দিলেন সানিয়া

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তাঁর ‘অপরাধ’, তিনি এক জন পাকিস্তানিকে বিয়ে করেছেন। আর সে জন্যই একাধিক বার তাঁকে কটু মন্তব্যের মুখে পড়তে হয়েছে। কিন্তু এ বারের পুলওয়ামা কাণ্ডের পরে রীতিমতো আক্রমণের মুখোমুখি হলেন এ দেশের টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা।

তবে এ বার আর চুপ করে থাকেননি সানিয়া। টুইট করে জবাব দিয়েছেন আক্রমণের। তিনি বলেছেন, “এই পোস্টটি তাঁদের জন্য, যাঁরা মনে করেন, এক জন সেলিব্রিটি হিসেবে, আমাকে টুইটার এবং ইনস্টগ্রামে যে কোনও আক্রমণের নিন্দা জানাতে জানতে হবে। যাতে এটা প্রমাণিত হয়, যে আমরা দেশপ্রেমিক এবং আমরা দেশের যত্ন নিই। কেন? কারণ আমরা সেলিব্রিটি।”

দেখে নিন সেই টুইট।

সানিয়া আরও বলেন, “আমি দেশের জন্য খেলি, দেশের জন্য ঘাম ঝরাই। আর এই ভাবেই আমি আমার দেশের সেবা করি । সেই সঙ্গে দেশের সিআরপিএফ জওয়ান ও তাঁদের পরিবারের পাশেও দাঁড়াই। আমায় সেটা সব সময় ফেসবুকে পোস্ট করে প্রমাণ দিতে হয় না।”

গত বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ জওয়ানদের একটি কনভয়ের উপরে আত্মঘাতী হামলা চালায় সন্ত্রাসবাদীরা। ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪৯ জন জওয়ান শহীদ হন। এই ঘটনার জেরে পুরো দেশ ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। উত্তাল হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া। যে যার মতো নিজের মতামত প্রকাশ করেন সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম সোশাল মিডিয়ায়।

সেখানেই বারবার আক্রমণ করা হয় সানিয়া মির্জাকে। কারণ পাকিস্তানের ক্রিকেটার শোয়েব মালিকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে তাঁর। সানিয়াকে আক্রমণ করে বলা হয়, সেই কারণেই দেশের এই হামলায় তিনি চুপ করে আছেন।

সানিয়া তাঁর টুইটে আরও বলেন, “১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের জন্য একটি অন্ধকার দিন ছিল এবং আমি আশা করি আমাদের এমন দিন দেখতে না হয়। এই দিন ভুলে যাওয়া হবে না। আমি শান্তির জন্য প্রার্থনা করি। আর রাগ তত ক্ষণ পর্যন্ত ভাল, যত ক্ষণ তার থেকে ভাল কিছু আসছে। আর রাগের বশে কাউকে ঠাট্টা করে, আদতে কিছুই হাসিল করা যায় না।”
Shares

Comments are closed.