মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

কাশ্মীর নিয়ে সব দেশ ভারতকে বিশ্বাস করে আমাদের নয়, স্বীকার করলেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গত মঙ্গলবার জেনিভায় রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশি মুখ ফসকে বলে ফেলেছিলেন, ইন্ডিয়ান স্টেট অব কাশ্মীর। অর্থাৎ তিনি স্বীকার করেছিলেন, কাশ্মীর ভারতের অংশ। তাতে অস্বস্তিতে পড়েছিল ইমরান খানের সরকার। বুধবার সেই অস্বস্তি বহুগুণ বাড়িয়ে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার ইজাজ আহমেদ শাহ স্বীকার করলেন, পাকিস্তান আন্তর্জাতিক মহলের সমর্থন পেতে ব্যর্থ হয়েছে। বরং ভারতের কথাই সকলে বিশ্বাস করছে।

দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য পাকিস্তানের শাসকরাই দায়ী বলে ইজাজ আহমেদ শাহ মনে করেন। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ইমরান খানের জন্যও আমাদের দেশের বদনাম হয়েছে। তাঁর কথায়, আন্তর্জাতিক মহল আমাদের বিশ্বাস করে না। আমরা আন্তর্জাতিক মহলকে বলছি, ভারত সরকার জম্মু-কাশ্মীরে কার্ফু জারি করে রেখেছে। তারা সেখানকার মানুষকে ওষুধ পর্যন্ত দিচ্ছে না। কিন্তু কোনও দেশ আমাদের কথায় বিশ্বাস করছে না। বরং তারা ভারতকেই বিশ্বাস করছে।

পাকিস্তানের ‘হাম নিউজ’ নামে এক চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে নিজেদের সরকারেরই কড়া সমালোচনা করেন ইজাজ। তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, বেনজির ভুট্টো, পারভেজ মুশারফ, ইমরান খান, সকলেই কি দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের জন্য দায়ী? তিনি বলেন, হ্যাঁ, সবাই দায়ী। আমাদের ভেবে দেখা উচিত কেন কেউ পাকিস্তানকে সমর্থন করে না।

মঙ্গলবার রাষ্ট্রপুঞ্জের মানবাধিকার পরিষদে পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী বলেছিলেন, কাশ্মীর এখন এই গ্রহের সবচেয়ে বড় জেলখানায় পরিণত হয়েছে। সেখানে মানবাধিকার পদদলিত হচ্ছে। ভারত সেই অভিযোগ অস্বীকার করে বলে, পাকিস্তান কাশ্মীর নিয়ে মিথ্যা কথা বলছে। ওই দেশটি এখন জঙ্গিদের ঘাঁটিতে পরিণত হয়েছে। আন্তঃসীমান্ত সন্ত্রাসে মদত দেওয়া তাদের কূটনীতির অঙ্গ।

Comments are closed.