শনিবার, আগস্ট ২৪

মুখ্যমন্ত্রী আমায় সেরা বললে আমি কী করব, আদালতে প্রশ্ন রাজীবের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয়পাত্র হওয়ার জন্যই কি রাজীব কুমারকে বারবার ডেকে পাঠাচ্ছে সিবিআই? কলকাতা হাইকোর্টে এমনই প্রশ্ন তুললেন রাজীব কুমারের আইনজীবী। রাজীবের পক্ষে তিনি বলেন, মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী আমাকে বিশ্বের সেরা পুলিশ অফিসার বলছেন, সিবিআই অফিসাররা যেদিন আমার বাড়িতে এসেছিল সেদিন মুখ্যমন্ত্রীও আমার বাড়িতে এসেছিলেন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যদি আমাকে সেরা অফিসার বলেন তাতে আমার কী করার আছে, আমি কি তাঁকে বলছিলাম আমাকে সেরা অফিসার বলার জন্য? রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান যদি আমার বাড়িতে আসেন, আমি কি তাঁকে না বলতে পারি? এসবের জন্যেই কি আমাকে হেনস্থা করছে সিবিআই?

এদিন শুনানি শেষে রাজীব কুমারের গ্রেফতারের উপরে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের মেয়াদ বাড়াল আদালত। আগামী ২০ অগস্ট পর্যন্ত বহাল থাকবে স্থগিতাদেশ। একই সঙ্গে এদিন বিধাননগরের সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআই দফতরে হাজিরার জন্য রাজীব কুমারকে কলকাতা পুর-এলাকা ছাড়ার অনুমতি দিল আদালত। রোজভ্যালি কাণ্ডে নোটিস দিয়ে ডাকলে এখন থেকে সিজিও কমপ্লেক্সে যেতে পারবেন রাজীব।

তবে এখনও সিবিআইয়ের ডাকে সাড়া দিলেন না রাজীব। হাজিরা পিছাতে এবার রাজীব কুমারের ঢাল ধারা ৩৭০। তাঁর দাবি,
কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের পরে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে গোয়েন্দা রিপোর্ট উদ্বেগজনক, তাই হাজিরার দিন এক মাস পিছনো হোক। বৃহস্পতিবার এই মর্মেই সিবিআইকে চিঠি পাঠান রাজীব। শুক্রবার সিবিআইয়ের আইনজীবী বলেন, যদি রাজীব বলতেন যে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশের কারণে তিনি কলকাতা ছেড়ে বিধাননগরে যেতে পারছেন না, তাহলে আমাদের কিছু বলার নেই, কিন্তু গোয়েন্দা রিপোর্টের যে যুক্তি রাজীব দিচ্ছেন সেটা নিয়ে প্রশ্ন আছে।

Comments are closed.