মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২

মোদীর মনের কথাকে ব্রত করে নিয়েছেন আশা, বাজারে ব্যাগ বিলিই তাঁর কাজ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারত যেমন সিঙ্গল-ইউজ় প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, গোটা বিশ্বেরই সেই পথে হাঁটা উচিত। সোমবার এই দাবি তুলেই রাষ্ট্রসঙ্ঘের জলবায়ু সম্মেলনে বক্তৃতা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিন উপলক্ষে আগামী ২ অক্টোবর থেকে সারা দেশে ছ’ধরনের প্লাস্টিকজাত দ্রব্যের ব্যবহার ও উৎপাদনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই ছ’টি দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে প্লাস্টিকের ব্যাগ, কাপ, প্লেট, ছোট বোতল, স্ট্র এবং কিছু স্যাশে পাউচ।

তবে তার অনেক আগে থেকেই প্ল্যাস্টিক ব্যগ বন্ধ করে সাধারণ মানুষকে কাপড়ের ব্যাগ ব্যবহারে অভ্যস্ত করার কাজে নেমেছে ছত্তিশগড়ের বৈরাগী পরিবার। বিক্রি নয়, পুরনো কাপড়ের ব্যাগ বানিয়ে বিনা পয়সায় বিলি করাকে ব্রত হিসেবে নিয়েছেন গৃহবধূ আশা বৈরাগী। সঙ্গে আছেন স্বামী সুরেন্দ্র। বৈরাগী দম্পতি নিয়মিত ঘুরে বেড়ান বাজারে বাজারে। পুরনো জামা, কাপড় থেকে বেডশিট সব দিয়েই ব্যাগ বানান আশা।

সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, “আমরা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বক্তব্য থেকেই এই কাজের প্রেরণা পেয়েছি। উনি অনেক বড় করে ভাবছেন কিন্তু ওনার পাশে দাঁড়াতে আমাদের এই ছোট্ট উদ্যোগ।” তিনি আরও বলেন, প্লাস্টিক থেকে দূষণ শুধু মানুষের ক্ষতি করে না। পশুদের জন্যও ক্ষতিকর। এর ব্যবহার বন্ধ করা উচিত।

প্রধানমন্ত্রী মোদী তাঁর ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে প্রথমবার প্ল্যাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করার আর্জি জানিয়েছিলেন। এর পরে স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে প্ল্যাস্টিক ব্যগ ব্যবহার বন্ধে কেন্দ্রের পদক্ষেপের ইঙ্গিত দেন। সেই সব বক্তৃতা শুনেই এমন ব্যাগ বিলিকে ব্রত করে নেন– আশা ও সুরেন্দ্র।

Comments are closed.