সোমবার, আগস্ট ১৯

Breaking : পাকিস্তানে ধৃত জঙ্গি হাফিজ মহম্মদ সইদ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : জুলাইয়ের মাঝামাঝি পাকিস্তানের সন্ত্রাসদমন আদালতে জামিন পেয়েছিলেন জঙ্গি সংগঠন লস্কর ই তৈবার প্রধান হাফিজ মহম্মদ সইদ। কিন্তু বুধবার পাকিস্তানের পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করেছে। প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, গুজরানওয়ালা থেকে লাহৌর যাওয়ার পথে তিনি গ্রেফতার হন। আপাতত তাঁকে জেল হেপাজতে পাঠানো হয়েছে।

পর্যবেক্ষকদের ধারণা, আন্তর্জাতিক চাপেই হাফিজ মহম্মদ সইদকে ইমরান খানের সরকার গ্রেফতার করতে বাধ্য হয়েছে। ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স নামে এক আন্তর্জাতিক সংস্থা কয়েক মাস ধরেই পাকিস্তানের ওপরে চাপ দিচ্ছে যাতে তারা সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়।

সন্ত্রাসবাদে অর্থ যোগানোর দায়ে জুলাই মাসের শুরুতেই গ্রেফতার হন মুম্বই হামলার প্রধান চক্রী হাফিজ। পাকিস্তানে তাঁর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদ সংক্রান্ত ২৩ টি মামলা আছে। কিন্তু সরকার তাঁর বিরুদ্ধে যথাযথ প্রমাণপত্র কোর্টে পেশ করেনি। সেজন্যই তিনি জামিন পেয়ে যান।

পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, পাঁচটি ট্রাস্টের মাধ্যমে হাফিজ সন্ত্রাসবাদের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেন। সেই অর্থ পায় মূলত লস্কর ই তৈবা নামের জঙ্গি সংগঠনটি। তারা ২০০৮ সালে মুম্বই শহরে বড় ধরনের হামলা করে। ১০ জন বন্দুকধারী শহরের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় গুলি চালায়। ১৬৫ জন নিহত হন।

লস্কর প্রধান হাফিজ সইদকে ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী বলে ঘোষণা করেছে রাষ্ট্রসঙ্ঘ। আমেরিকা ঘোষণা করেছে, তাঁকে শাস্তি দেওয়ার মতো প্রমাণপত্র যদি কেউ দিতে পারে তাকে ১ কোটি ডলার পুরস্কার দেওয়া হবে।

হাফিজ পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর আশ্রয়ে ছিলেন বলে জানা যায়। তাদের চেষ্টায় অতীতে কয়েকবার গ্রেফতার হয়েও তিনি ছাড়া পান। এবার ইমরান খানের সরকার তাঁকে কতদিন বন্দি করে রাখতে পারে, সেদিকেই লক্ষ রাখবেন পর্যবেক্ষকরা।

Comments are closed.