শুক্রবার, এপ্রিল ২৬

অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স থেকে রেহাই দেওয়া হতে পারে স্টার্ট আপ কোম্পানিগুলিকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ২০১২ সালে সদ্যগঠিত সংস্থা বা স্টার্ট আপ কোম্পানিগুলির ওপরে বসানো হয়েছিল অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স। ভোটের আগে সেই কর ছাড় দেওয়ার কথা ভাবছে কেন্দ্রীয় সরকার। খুব শীঘ্রই ডিপার্টমেন্ট অব প্রমোশন অব ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড ইন্টারন্যাল ট্রেডের অনুমোদিত স্টার্ট আপ কোম্পানিগুলির জন্য অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স ছাড়ের কথা ঘোষণা করা হতে পারে। একটি সূত্রে খবর, আগামী সোমবার এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি জারি হতে পারে।

কাকে বলে অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স?

সাধারণত প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিগুলিতে যখন বাড়তি বিনিয়োগের প্রয়োজন হয়, তারা ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ চাইতে পারে। ব্যাঙ্কও সেই সংস্থার অতীতের কার্যকলাপ ও বর্তমান আয় খতিয়ে দেখে ঋণ দেয়। কিন্তু সদ্য গঠিত হয়েছে এমন কোনও সংস্থা এইভাবে ঋণ পায় না। সেক্ষেত্রে স্টার্ট আপ কোম্পানির মালিকরা অনেক সময় ধনী লোকজনের থেকে ঋণ চায়। কিন্তু এই সংস্থাগুলিকে ঋণ দেওয়া খুব ঝুঁকির ব্যাপার। নতুন কোম্পানি যদি না দাঁড়াতে পারে তাহলে পুরো অর্থ জলে যাওয়ার সম্ভাবনা।

সেজন্য অনেক সময় কয়েকজন ধনী ব্যক্তি মিলে কোনও স্টার্ট আপ কোম্পানিতে বিনিয়োগ করে। বিনিময়ে তারা কোম্পানির ইকুইটি শেয়ার পায়। স্টার্ট আপ কোম্পানি যদি ফ্লিপকার্ট, অ্যাপেল, পেটিএমের মতো সফল হয়, তাহলে আবার বিনিয়োগকারীদের ব্যাপক লাভ হয়। সেক্ষেত্রে যেন নতুন সংস্থা অ্যাঞ্জেল অর্থাৎ দেবদূতের মতো বিনিয়োগকারীদের জন্য সমৃদ্ধি বহন করে আনে।

এই অ্যাঞ্জেল কোম্পানিতে বিনিয়োগের জন্য যে টাকা তোলা হয়, তার ওপরে সরকার কর নেয়। তাকেই বলা হয় অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স। অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স ল অনুযায়ী আয়কর দফতর স্টার্ট আপ কোম্পানির মালিকদের নোটিশ পাঠায়। তারা যে পুঁজি সংগ্রহ করেছে, তার ওপরে ৩০.১ শতাংশ কর দিতে বলা হয়। আগামী দিনে এই কর ছাড় দিলে নতুন কোম্পানি খুলতে উৎসাহী হবে। তাতে শিল্পের বিকাশ হবে। সেই সঙ্গে বাড়বে কর্মসংস্থান।

একটি সূত্রের খবর, যে স্টার্ট আপ সংস্থাগুলিতে মোট বিনিয়োগের হার ২৫ কোটি টাকার কম, সেখানেই মিলবে এই ছাড়। তাছাড়া সেই সংস্থাকে স্টার্ট আপ হিসাবে ১০ বছর শ্রেণিবদ্ধ থাকতে হবে। দীর্ঘদন ধরেই স্টার্ট আপ কোম্পানিগুলি অ্যাঞ্জেল ট্যাক্স ছাড় দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছিল। সম্প্রতি ডিপার্টমেন্ট অব ইন্ডাস্ট্রিয়াল পলিসি অ্য ন্ড প্রমোশন এবং সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডায়রেক্ট ট্যাক্সেস-এর এক বৈঠকে করছাড়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

Shares

Comments are closed.