Latest News

এবার পুজোয় খেস এসেছে নতুন সাজে, সঙ্গী পাঞ্জাবি

সোমা লাহিড়ী

প্রতিবারের মতো এবারেও তাঁতকে পুজোর সাজে সাজিয়েছেন শিল্পীরা। তাতে ডিজাইনের বৈচিত্র্য আনতে সাহায্য করেছেন ডিজাইনাররা। এবার পুরনো তাঁত-খেসের নকশাকে একেবারে নতুন রূপ দিয়েছেন ডিজাইনার সোমা দত্ত। তাঁর ‘অঞ্জন’স ক্রিয়েশন’ বুটিকে খেসের (Puja Special) সম্ভার নজর কাড়বে সবার।

Image - এবার পুজোয় খেস এসেছে নতুন সাজে, সঙ্গী পাঞ্জাবি

• কীভাবে খেস শাড়ি তৈরি হল?

বীরভূমের শিল্পীরাই প্রথম খেসের মতো বুনন আনেন তাঁতে (Puja Special)। ডিজাইনার সোমা দত্ত জানালেন তিনি যোগাযোগ করেছিলেন বীরভূমের আভাডাঙার নামী তাঁতশিল্পী মানিকলাল কুন্ডুর সঙ্গে। এই মানিকবাবুই প্রথম খেস শাড়ি বুনেছিলেন বলে দাবি করেন। শান্তিনিকেতনের একজন মহিলা শিল্পী তাঁকে প্রথম খেস শাড়ি বোনার কথা বলেছিলেন।তার আগে বেডকভার ,পর্দা বোনা হতো। সেই শিল্পীই প্রথম নিজে ডিজাইন করে দিয়ে মানিকবাবুকে বলেন, ‘ ‘পর্দা বেডকভার যখন বোনা হয়, তখন শাড়িও বোনা যাবে। শাড়ির ক্ষেত্রে পুরো শাড়িতে নয় (Puja Special), টানা-পড়েনে সুতির সুতোর সঙ্গে কিছুটা দূরত্বে লম্বালম্বি বোনা যেতে পারে খেস সুতো।’ তাঁর দেখানো পথেই নানান রঙের খেস সুতো মিলেমিশে তৈরি হয় অসাধারণ শাড়ির নকশা। শুধু বীরভূমে নয়,এখন শান্তিপুরেও খেস তাঁত তৈরি হচ্ছে। তবে তার বুনন তেমন সরেস নয়।

Image - এবার পুজোয় খেস এসেছে নতুন সাজে, সঙ্গী পাঞ্জাবি

• খেস সুতো মানে কী?

নতুন নয়, পুরনো নরম সুতির কাপড় সরু সরু করে কেটে তাকে পাকিয়ে তৈরি হয় খেস সুতো। তারপর ডিজাইন অনুযায়ী সাধারণ সুতির সুতোর টানা-পড়েনে মিলিয়ে দেওয়া হয়। রংবেরঙের খেস সুতো মিলিয়ে মিশিয়ে বোনা হয় বলে শাড়িগুলো হয় কালারফুল (Puja Special)। ডিজাইনার সোমা জানালেন, তিনি বিশিষ্ট তাঁতশিল্পীদের দিয়ে সব ধরনের রঙের কম্বিনেশনে খেস বুনিয়েছেন।

সোনা নয়, রুপোও নয়, এবার পুজোয় তামার দাম বেশি

Image - এবার পুজোয় খেস এসেছে নতুন সাজে, সঙ্গী পাঞ্জাবি

ম্যাচ করে পাঞ্জাবি আর শাড়ির সেটও তৈরি হয়েছে। আবার শুধু সুতির সুতোয় না বুনিয়ে তসর ও সুতির টানা-পড়েনের সঙ্গে খেস সুতো দিয়েও ডিজাইন হয়েছে পুজোর জন্য। এই শাড়িগুলোর গেট আপ বেশ ব্রাইট। কালার শেড হালকা থেকে গাঢ়-সবরকম (Puja Special)।

Image - এবার পুজোয় খেস এসেছে নতুন সাজে, সঙ্গী পাঞ্জাবি

• খেসের সঙ্গে আপ্লিক কাঁথাকাজ

পুজোর সময় সকলেই নতুন কিছু চান। তাই খেসকে শুধু রঙের বৈচিত্রে নয়, আপ্লিকে ,কাঁথাকাজে সাজিয়েছেন শিল্পীরা। রংবেরঙের চেক স্ট্রাইপ খেসে নানারকম প্লেসমেন্টে আপ্লিক আর কাঁথাকাজ করে খুব সুন্দর সুন্দর শাড়ি তৈরি হয়েছে পুজোর জন্য। দামও খুব বেশি নয়। পুজোয় উপহার দেওয়ার জন্য খুব ভাল। আটশো টাকা থেকেই বীরভূমের খেস তাঁত পাবেন। পাঞ্জাবি শাড়ির যুগলবন্দিও উপহার দেওয়ার জন্য ভাল। তেরো’শো টাকা থেকে পাবেন। 

You might also like