Latest News

এখন কনের চাই স্টার অ্যাট্রাকশন, সেলেব ডিভা লুক

বদল তো হচ্ছেই। বিয়ের সাজে আজকের কনে চায় সেলেব লুক। কলকাতার তিন সেলিব্রিটি মেকআপ আর্টিস্ট , স্টাইলিং এক্সপার্ট জানালেন এই মুহূর্তে কনে সাজে কী কী বদল এসেছে। লিখেছেন সোমা লাহিড়ীবিয়ের সাজে বাঙালি কনের সেই লাজনম্র রূপ চাইছে না এ প্রজন্মের অনেক কনেই। তাদের চাই স্টার ডিভা। আবার এনআরআই কনেরা চাইছে পুরনো দিনের মা কাকিমাদের মতো কনে সাজ। পরস্পর বিরোধী দুই চাহিদার সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছেন কলকাতার নামীদামি মেকআপ আর্টিস্টরা।
প্রথমেই দেখা যাক কলকাতার সেলিব্রিটি মেকআপ আর্টিস্ট অনিরুদ্ধ চাকলাদার কী বলছেন…

কনে সাজে ‘উল্টে দেখুন পাল্টে গেছি’ ঠিক নয়: অনিরুদ্ধ চাকলাদারটলিউডের এমন কোনও অভিনেত্রী নেই যাকে শ্যুটের জন্য কনের সাজে সাজাননি অনিরুদ্ধ। তবে কাছাকাছি সময়ে সত্যিকারের বিয়েতে তিনি সাজিয়েছেন পাওলি, রিদ্ধিমা, লগ্নজিতাকে। এরা কেউই তাঁকে কোনও নির্দেশ দেননি। প্রত্যেককে তার ব্যক্তিত্ব অনুযায়ী সাজিয়েছেন তিনি।

বনেদি বাড়ির সাজে অনিরুদ্ধ সাজিয়েছেন লগ্নজিতাকে

এখন বেশিরভাগ কনেরই নিজস্ব মতামত থাকে, বললেন অনিরুদ্ধ। অনেকেই চান লাউড মেকআপ, ইলাবরেট আইজ, পাউটি লিপ, এক্কেবারে ট্রানজিশন। নিজেকে পুরোপুরি বদলে ফেলতে চান বিয়ের দিনে। সোশ্যাল মিডিয়ার দাপটই এর কারণ। হাত চাপা মুখ খুললেই সুন্দরী। মেকআপে পুরোপুরি নিজেকে বদলে ফেলতে চাইছে অনেকেই। বিশেষ করে বিয়ের দিনে। আমি নিজে অবশ্য এই ‘উল্টে দেখুন পাল্টে গেছি’ কনসেপ্টে বিশ্বাসী নই। তবু হবু কনের চাহিদা অনুযায়ী কাজ করতেই হয়। অনিরুদ্ধ মনে করেন, প্রত্যেক মেয়ের নিজস্ব সৌন্দর্য আছে। প্রত্যেকের ব্যক্তিত্ব আলাদা। তাই তাকে তার মতো রেখেই লাবণ্যময়ী কনে করে তোলাই একজন মেকআপ আর্টিস্টের কাজ। আর ন্যাচারাল মেকআপেই এটা করা সম্ভব।অতিরিক্ত চোখ ও ঠোঁটের মেকআপ কনেকে মানায় না। ব্লাশারের ব্যবহারও লাউড না হলেই ভালো হয়।

ন্যাচারাল মেকআপে রিদ্ধিমাকে সাজিয়ে তুলেছিলেন অনিরুদ্ধ

যেকোনও বয়েসের কনেকেই কি লাল বেনারসি মানায়?
অনিরুদ্ধ বললেন, বয়েস বা গায়ের রঙ যাই হোক বিয়ের দিনে লালের যেকোনও শেডের বেনারসি পরলেই বাঙালি কনেকে ভালো লাগে। অনেকে লাল আর অফ হোয়াইট কম্বিনেশনের বেনারসি পরতে চাইছে। পার্সোনালিটি অনুযায়ী ভালোই লাগছে। বার্নট অরেঞ্জ, রোজি পিঙ্ক, রানি পিঙ্ক, ম্যাজেন্টাও কনেকে মানিয়ে যায়। ওড়নার আড়ালে খোঁপার মালা আর কপালে চন্দনের আলপনা কিন্তু মাস্ট।

কনে পাওলির কপালে অনিরুদ্ধ এঁকেছিলেন চন্দনের আলপনা

অনিরুদ্ধর কাছে কনে সাজতে চাইলে চলে যেতে হবে তাঁর দক্ষিণ কলকাতার মেকআপ স্টুডিওতে। খরচ মোটামুটি ২০হাজার টাকা। বুকিংয়ের নম্বর 9830039699 

ফিরছে লবঙ্গ দিয়ে চন্দন আর পায়ে আলতার আলপনা, এক্সপেরিমেন্ট করুন রিসেপশনে: কৌশিক -রজতএই তো কয়েকমাস আগেও কনেরা চাইছিল একটু আলট্রা মড লুক। কিছুতেই বোঝানো যেত না গ্ল্যামারাস মেকআপ নয়, ন্যচারাল মেকআপেই কনেকে ভালো দেখায়। হঠাৎ একটা বদল দেখতে পাচ্ছি। এবার বেশ কয়েকজন কনে প্রথম কথা বলার সময়ই বলল, একেবারে সাবেকি ধরনে কনে সাজতে চায়। একজন এন আর আই কনে লবঙ্গ দিয়ে চন্দন পরাতে বলেছে। মেহেন্দি আর পছন্দ নয় তাদের, পায়ে আলতার আলপনা, এমনকী হাতেও আলতা চন্দনের নকশা পরতে চাইছে এ প্রজন্মের কনেরা… হাসতে হাসতে বললেন মেকআপ আর্টিস্ট কৌশিক।

কনে সাজাচ্ছেন কৌশিক

বাঙালি কনে বিয়ের দিন পুরোপুরিভাবে বাঙালিয়ানায় ফিরতে চাইছে, এর থেকে আনন্দের খবর আর কী হতে পারে! যা কিছু এক্সপেরিমেন্ট রিসেপশনে। শাড়ির বদলে লেহেঙ্গা, খোঁপার বদলে মডার্ন হেয়ার ডু,মালা নয়, লেহেঙ্গার সঙ্গে রং মিলিয়ে ফ্লাওয়ার আরেঞ্জমেন্ট- একদম ডিফারেন্ট লুক।স্টাইলিং এক্সপার্ট রজত বললেন, বিয়ের দিনের সাজে মেকআপ ট্রাডিশনাল চাইলেও ব্লাউজ নিয়ে নানান রকম পরীক্ষানিরীক্ষা চলছে। লাল বেনারসির সঙ্গে লাল ব্লাউজ নয়, গ্রিন বা ব্লু ডিজাইনার ব্লাউজ পরলে বেশ দেখায়। নেটের ফ্রিল দেওয়া ব্রোকেডের ব্লাউজও চাইছেন আধুনিকা কনে।

রিসেপশন লুক, স্টাইলিংয়ের দায়িত্বে রজত

শুধু টলিউড নয়,বলিউডের অনেক সেলেবকেও ব্রাইডাল লুক দিয়েছেন এঁরা। শিল্পা শেঠি, লারা দত্তকে বিয়ের রিসেপশনে সাজিয়েছেন। এঁরা ভারতের যে কোনও শহরে ব্রাইডাল মেকআপে যান।
কৌশিক-রজতের কাছে কেউ বিয়ে বা রিসেপশনে সাজতে চাইলে যোগাযোগ করতে পারেন 98314 54564 নম্বরে।

You might also like