Latest News

Men Bridal Fashion: পুরুষদের জন্য এক্সক্লুসিভ রেঞ্জের ব্রাইডাল কালেকশন, কোথায় পাবেন, কত দাম

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ত্রিশ বছর ধরে পুরুষদের ডিজাইনার এথনিক ওয়্যার নিয়ে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন ডিজাইনার পুনম কাসেরা। পরবর্তী সময়ে তাঁর সঙ্গে যুগ্মভাবে ডিজাইনিং করছেন পুত্রবধু রুচি কাসেরা। বিয়ের নানা অনুষ্ঠানে পরার জন্য তাঁদের তৈরি ডিজাইনার ওয়েডিং কালেকশন পুরুষদের কাছে ফার্স্ট চয়েজ।

ইতিমধ্যে তাঁরা টলিউডের প্রয়াত অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় থেকে টলিউড সুপার স্টার দেব, অনির্বাণ ভট্টাচার্য প্রমুখদের জন্য পোশাক তৈরি করেছেন। সম্প্রতি এই ডিজাইনারদের স্টুডিওতে স্প্রিং সামার ওয়েডিং কালেকশন লঞ্চ করল। অনুষ্ঠানের ফাঁকে ডিজাইনার পুনম ও রুচি তাঁদের কালেকশন নিয়ে একান্তে কথা বললেন চৈতালি দত্তের সঙ্গে।

আপনারা তো মূলত পুরুষের ডিজাইনার পোশাক তৈরি করেন?
পুনম : হ্যাঁ ,গত ত্রিশ বছর ধরে আমরা পুরুষদের ডিজাইনার পোশাক তৈরি করছি। শুধু তাই নয় আমরা পুরুষদের জন্য পোশাক কাস্টমাইজড করি। আপনি তো জানেন পুরুষদের কাছে আমাদের ব্রাইডালওয়্যার খুবই জনপ্রিয়।

আপনারা মূলত কী ধরণের ফ্যাব্রিক নিয়ে কাজ করতে পছন্দ করেন?

পুনম, রুচি : পিওর সিল্ক এবং হ্যান্ডলুম নিয়ে কাজ করি । আর্টিফিশিয়াল ফ্যাব্রিক কোনও অ্যাটেয়ারে ব্যবহার করি না। তবে কালার প্যালেট পোশাকের কালেকশন অনুযায়ী পরিবর্তিত হয়।

যেমন?

পুনম, রুচি : প্যাস্টেল শেড ব্যবহার বেশি করি। এখন প্যাস্টেল কালার ফ্যাশনে খুব ইন্। পিচ,ইয়ালো, গ্রিন , আইভরি ইত্যাদি কালার নিয়ে এই সিজনে কাজ করেছি।

এই সিজনে কী ধরনের ব্রাইডাল কালেকশন লঞ্চ করলেন?

পুনম,রুচি: আমরা এথনিক ওয়্যার তৈরি করি। আমাদের কালেকশনে রয়েছে কুর্তা, জ্যাকেট ,পাঠান স্যুট ইত্যাদি।

এই গরমে পুরুষদের পোশাকে এখন ট্রেন্ড কী?

পুনম: খুব সিম্পল অ্যাটেয়ার এখন ট্রেন্ড । হেভি ওয়ার্ক এখন পুরুষেরা পছন্দ করেন না। সিম্প্লিসিটি এখন পোশাকের শেষ কথা। এটাই এখন ট্রেন্ড । আমাদের পোশাকে ডিটেলিং ওয়ার্ক থাকে। গত ৩০ বছর ধরে আমি সেভাবেই কাজ করছি। খুব বেশি এমব্রয়ডারি করা জবরজং পোশাক তৈরি করি না। আর এই গরমে পুরুষেরা কম্ফোর্টেবল পোশাকে নিজেদেরকে সাজাতে পছন্দ করেন। যা হবে খুবই ছিমছাম।

২০২২ এ পুরুষদের পোশাকে কী ধরনের কালার চলবে বলে ডিজাইনার হিসাবে আপনাদের মনে হয়?

পুনম,রুচি : দেখুন গরমে পোশাকে হালকা রঙ দেখতে ভাল লাগে। ওয়েডিং-এর ক্ষেত্রেও সে কথাই বলব। খুব বেশি লাউড, হেভি এমব্রয়ডারি ওয়ার্ক এই সিজনে চোখের আরাম দেয় না। আর আগেই আমি বলেছি এই সিজনে প্যাস্টেল শেড খুবই ইন । লাইট ক্রিম, সিগ্রিন ,অ্যাকোয়া ব্লু, লাইট পিচ,আইভরি ইত্যাদি বিয়ের যে কোনো অনুষ্ঠানে এখন এই ধরনের কালার পুরুষদের কাছে বিরাট চাহিদা। বিয়েতে তো অনেক রকমের আচার অনুষ্ঠান থাকে এই ধরনের কালার পরলে দেখতে খুবই ভাল দেখায়। সঙ্গীত, মেহেন্দি অনুষ্ঠানে প্যাস্টেল কালারের ডিজাইনার পোশাকের খুবই চাহিদা।

কি ধরনের এমব্রয়ডারি নিয়ে আপনারা কাজ করেন?
পুনম রুচি:
আমাদের স্পেশালিটি কাশ্মীরি স্টিচ হলেও চিকেন কারি, গুজরাটি, কাঁথা ইত্যাদি যাবতীয় হ্যান্ড এমব্রয়ডারি নিয়ে আমরা কাজ করি। টোন অন টোন কাশ্মীরি স্টিচ যেমন থাকে আবার টেক্সচার ফিনিশ কালেকশনও আমরা লঞ্চ করেছি যা খুবই ফ্যাশনেবল।

ত্রিশ বছর আগে যখন এই লেবেল চালু হয় তখন পুরুষদের মধ্যে কি ধরনের চাহিদা আপনারা দেখতে পেয়েছিলেন?
পুনম:
প্রথমেই আমি বলব বিয়ের পর আমি এই পেশায় আসি। আর আমি বাড়ির বড় বউ। ফলে সব দায়-দায়িত্ব সামলিয়ে তবেই আমি লেবেল লঞ্চ করেছি। এই লেবেল লঞ্চ করার আগে নিজেদের আত্মীয়-স্বজন, পরিচিত, বন্ধুবান্ধব দের ওয়েডিং কালেকশন আমি করে দিতাম। এটা আমার প্যাশন। প্রত্যেকে আমার কাজকে খুবই তারিফ করতেন । ৩০ বছর আগে যখন আমি এই লেবেল লঞ্চ করি সেই সময় আমার স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ি প্রত্যেকের থেকে প্রচুর সমর্থন পাই। আমার একমাত্র ছেলে সে সময়ে খুব ছোট ছিল। আজকে আমার পুত্রবধূ রুচি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে আমার সঙ্গে কাজ করে চলেছেন। যা আমার বড় প্রাপ্তি । ত্রিশ বছর আগে তখন কিন্তু পুরুষেরা নিজেদের পোশাক নিয়ে এত সচেতন ছিলেন না। আর যেহেতু আমি পুরুষদের এথনিক ওয়্যার নিয়ে প্রথম থেকেই কাজ করছি ফলে কোথাও তখন পুরুষেরা আমার পোশাকের প্রতি আকর্ষিত হয়।

আপনাদের পোশাকে স্পেশালিটি কী ?
পুনম: আমরা ভারতীয় সংস্কৃতি থেকে অনুপ্রাণিত। যা আমাদের পোশাকের এমব্রয়ডারি, কাটসে প্রতিফলিত হয় ।

আপনাদের কালেকশনের রেঞ্জ কত টাকার থেকে শুরু?
পুনম, রুচি :
সাধারণ কুর্তার দাম ১৩ হাজার টাকা থেকে শুরু হলেও ব্রাইডাল কালেকশন ৭০|৮০ হাজার টাকা -৩ লাখ টাকা পর্যন্ত রয়েছে।

You might also like