Latest News

স্বাধীনতারও আগে থেকে দেশে চলছে এই পাঞ্জাবি রেস্তোরাঁ, কলকাতায় খুলল প্রথম শাখা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: স্বাধীনতার আগের কথা। তখন ১৯৪২ সাল, দিল্লির চাঁদনী চক থেকে যাত্রা শুরু করেছিল ‘কাকে দি হাটটি – সিনস ১৯৪২’ (Kake Di Hatti – Since 1942) রেস্তোরাঁ (Resturent) । চার প্রজন্ম ধরে সেই ঐতিহ্য আজও বহমান। সমগ্র  ভারতে এঁদের অগণিত আউটলেট রয়েছে। এবারে খোদ দক্ষিণ কলকাতায় (South Kolkata) ভবানীপুরে (Bhawanipur) ৩৪, গঙ্গাপ্রসাদ মুখার্জি রোড, ফার্স্ট ফ্লোর, নিরানন্দ প্লাজা, কলকাতা ২৫ এই ঠিকানায় ‘কাকে দি হাটটি সিনস ১৯৪২ প্যান ইন্ডিয়া’ রেস্তরাঁর পথচলা শুরু হল। যা কলকাতাবাসীদের জন্য নিঃসন্দেহে সুখবর বটে।

Image - স্বাধীনতারও আগে থেকে দেশে চলছে এই পাঞ্জাবি রেস্তোরাঁ, কলকাতায় খুলল প্রথম শাখা

দিল্লিতে এঁদের আউটলেটে যে ধরনের খাবার পরিবেশিত হয়, ঠিক একইভাবে এখানেও পাঞ্জাবি এবং উত্তর ভারতীয় সিগনেচার ডিশ পরিবেশন করা হবে বলে জানালেন রেস্তরাঁর কলকাতার ফ্রাঞ্চাইজির দুই কর্ণধার মিস্টার রোহিত ভূত ও গৌতম বাজোরিয়া। সেই সঙ্গে তাঁরা আরও জানান,  “এই ব্র্যান্ডের খাবারের ঐতিহ্য ধরে রাখতে খাঁটি মশলা থেকে শুরু করে সমস্ত উপকরণসহ যাবতীয় মৌলিকতা আমরা অটুট রেখেছি।“ এঁদের খাবারের স্বাদ ও গন্ধে বাঙালি থেকে অবাঙালি সবাই মজে যাবেন। 

এখানে মিলবে নরম তুলতুলে ‘কিং অফ নান’ অর্থাৎ ওভার সাইজ নান, যা মুখে দিলেই গলে যায়। এছাড়াও অন্যান্য স্পেশাল ডিশের মধ্যে রয়েছে তন্দুরি স্টার্টার, স্যুপ, ফ্রায়েড রাইস, ডাল, কিউরিস, নান, রোলস, মিক্স ভেজিটেবল, সয়া মালাই চাপ, মালাই কোফতা, তন্দুরি ডাল মাখানি, কাকে সিগনেচার নান রোল ইত্যাদি।

Image - স্বাধীনতারও আগে থেকে দেশে চলছে এই পাঞ্জাবি রেস্তোরাঁ, কলকাতায় খুলল প্রথম শাখা

এছাড়াও রয়েছে মকটেল, শেকস, ডেজার্ট এবং স্পেশাল জৈন থালি। তবে খাবার এখানে মিলবে আ-লা-কারটে। এছাড়াও এঁদের প্রতিটি আউটলেটে রয়েছে চাইনিজ স্টার্টার,  সেজুয়ান নুডুলস ইত্যাদি ভেজ আইটেম।

আ-লা-কারটে’র খরচ:

৮০০ টাকা + কর (২ জন)

সময় দুপুর ১১.৪৫- বিকেল ৪ টে,

সন্ধ্যা ৬ টা – রাত ২ টো পর্যন্ত।

এছাড়াও জোমাটো সুইগির মাধ্যমে খাবার অর্ডার করা যেতে পারে।

কলকাতায় এখন আম-উৎসব, সামার কুল স্পেশাল আইটেম কোথায় কোথায় পাবেন জানুন

You might also like