Latest News

আবার বিয়ের সাজে দেবলীনা-তথাগত! ব্যাপারটা কী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মাসটা ফাল্গুন। আকাশে বাতাসে প্রেমের গুনগুন। সন্ধে হতে না হতেই সানাইয়ের সুরে মাতোয়ারা শহর। কালও তার অন্যথা হয়নি।

এমনই সময়ে হিন্দুস্থান পার্কের এক বিয়ের আসরে কনে অভিনেত্রী দেবলীনা দত্ত (Debolina Dutta) ও বর পরিচালক-অভিনেতা তথাগত মুখোপাধ্যায় (Tathagato Mukherjee)। দেবলীনার সিথিতে উপচে পড়ছে লাল টকটকে সিঁদুর। লাল নীল সিল্ক আর জরির ঝলমলে লেহেঙ্গা শাড়িতে কনের মুখে সলাজ হাসি। এগিয়ে এলেন তথাগত। সিল্কের ধুতি পাঞ্জাবিতে ভারি হ্যান্ডসাম দেখাচ্ছিল তাঁকে। অসংখ্য ক্যামেরার ঝলকের সামনে কাছাকাছি এলেন দুজনে। হাতে হাত রাখলেন আলতো করে। সানাইয়ের সুরের রেশ তখন বদলে গেছে গানে, ‘এই রাত তোমার আমার, শুধু দুজনার!’পাশাপাশি, কাছাকাছি, মাখামাখি পোজে দুজনে। মিডিয়ার বন্ধুদের নিরাশ করলেন না দেবলীনা। তথাগতও। এক হাতে তো তালি বাজে না। তাঁদের চার হাতের মিলনে বিয়ের আসরে ছড়িয়ে পড়ল প্রেমের উন্মাদনা। প্রেম তো অমর। বিচ্ছেদ তাতে আপাত দূরত্ব আনলেও শিকড় হয়তো উপড়ে যায় না।‘যায়নি’, বললেন তথাগত। বললেন, “শুধু প্রোফেশনালি কাজের ক্ষেত্রেই নয়, আমরা এক ছাদের নীচে থাকছি না বলেই যে আমাদের এতদিনের বন্ধুত্ব, এতদিনের ভালবাসা হারিয়ে গেছে, তা কিন্তু নয়। এখনও দেবলীনা কোনও অসুবিধেতে পড়েছে জানলে আমি ওর পাশে হাজির হব। সামনেই আমাদের ‘ভটভটি’ ছবিটার রিলিজ আছে। এর পরও সুযোগ পেলে আমরা এক সঙ্গে কাজ করব। আলাদা আছি বলে মুখদর্শন করব না, কথা বলব না, কাজ করব না, ফেসবুকে পরস্পরকে আনফ্রেন্ড করব, আমাদের সম্পর্কটা ঠিক এইরকম নয়।”দেবলীনা খুব ব্যস্ত ছিলেন শ্যুটে। বললেন, “গতকাল ‘ত্রিশূল’য়ে আমার বিয়ের সিন ছিল। শ্যুট থেকে সরাসরি গেছিলাম হিন্দুস্থান পার্কের বিয়ের আসরে। তাই সিঁথিতে অত সিঁদুর ছিল। তাতে অবশ্য সুবিধেই হয়েছিল। কারণ ডিজাইনারের ব্রাইডাল কালেকশন লঞ্চ ছিল। মডেল হিসেবে ছিলাম আমি আর তথা।”তাঁদের ব্যক্তিগত সম্পর্কে ক্ষয়ক্ষতি, ভাঙন, ফাটল  যাই হয়ে থাকুক না কেন, জুটি হিসেবে দেবলীনা-তথাগতর আদর-কদর  আজও এতটুকু কমেনি। নাহলে নামী  ডিজাইনার কি তাঁর নতুন ব্রাইডাল কালেকশন লঞ্চে এই জুটির ওপর আস্থা রাখতেন!

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like