ব্যথিত, ক্ষুব্ধ ফ্রান গঞ্জালেজের ‘ট্যুইট বান’ মোহনবাগানকে

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো : মোহনবাগানের ওপর ক্ষুব্ধ গত মরসুমে খেলে যাওয়া ৩১ বছরের স্প্যানিশ মিডফিল্ডার ফ্রান গঞ্জালেজ। তিনি বুধবার সন্ধ্যায় ট্যুইট করে জানিয়েছেন, গত মরসুমে তিনি এত ভাল ফুটবল খেললেন, অথচ ক্লাব তাঁকে ভুলে গেল। তিনি সমর্থকদের উদেশ্যে জানিয়েছেন, ‘‘তোমরাও কী আমাকে ভুলে গেলে নাকি?’’

গতবার কিবু ভিকুনার দলের অন্যতম সেরা অস্ত্র মোহনবাগানের আই লিগ জয়ী দলের সদস্য ফ্রান জানিয়েছেন, ‘‘আমার সঙ্গে মোহনবাগানের আরও একবছর চুক্তি রয়েছে, তারপরেও ওরা আমার সঙ্গে আর কোনও যোগাযোগই করল না। এটা কী করে সম্ভব? তার চেয়েও বড় কথা, আমার এজেন্ট মোহনবাগানের কর্তাদের মেসেজও করেছেন, তারও কোনও জবাব দেননি কর্তারা।’’

বেশ আক্ষেপের সুরেই মোহনবাগানের গতবারের মিডফিল্ড জেনারেল জানিয়েছেন, আমার বিষয়টি খুব খারাপ লেগেছে। যে ফুটবলারটি গত মরসুমে নিজের সেরাটা দিল, তার সঙ্গে কোনও যোগাযোগই করা হল না? আমার অবদান ভুলে যাওয়া হল।’’ এমনকি মোহনবাগান সমর্থকদের উদেশ্যে গঞ্জালেজের বক্তব্য, ‘‘তোমরাও কী আমাকে ভুলে গেলে?’’ আগেরবার বহু ম্যাচে মোহনবাগান আটকে গিয়েছে, দলের জয় এনে দিয়েছিলেন তিনি। বেইতিয়াদের পাশে থেকে ফুল ফুটিয়েছেন।

মোহনবাগান ক্লাবের পক্ষ থেকে অর্থসচিব দেবাশিস দত্ত এদিন ‘দ্য ওয়াল’কে জানিয়েছেন, ‘‘ফ্রান যেরকম ট্যুইট করে ওর ক্ষোভের কথা জানিয়েছে, আমরাও তেমনি ট্যুইট করেই ওর পালটা জবাব দিয়ে দেব। এবং আমাদের তরফ থেকে ওর বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেব, সেটিও জানিয়ে দেব।’’ যদিও শোনা গিয়েছিল, ফ্রান চলে গিয়েছেন নর্থ ইস্ট ইউনাইটেডে, তাদের সঙ্গে চুক্তিও হয়ে গিয়েছে। কিন্তু ফ্রানের এই ট্যুইট দেখার পরে লাল হলুদ সমর্থকরা রীতিমতো তাঁর প্রতি সহানুভূতিশীল। বহু লাল হলুদ সমর্থকরা লিখেছেন, ‘‘ফ্রান তুমি আমাদের দলের হয়ে খেলতে এসো, তোমাদের মতো তারকাদের কিভাবে সম্মান জানাতে হয়, সেটা আমাদের ক্লাব ইস্টবেঙ্গল জানে। তুমি আমাদের হয়ে চলতি মরসুমে খেলবে।’’

ভিকুনার দলের সেই স্প্যানিশ তারকাদের মধ্যে কেউই এবারের দলে স্থান পাননি। মোহনবাগান সচিব সৃঞ্জয় বসুও সম্প্রতি জানিয়েছেন, ‘‘এটিকে-মোহনবাগান দলগঠন সারবে আমাদের কোচ হাবাস, তিনিই শেষ কথা। তাঁকে আমরা আমাদের কোনও সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেব না।’’ মনে করা হচ্ছে, হাবাসই মূলত এটিকে-তে খেলে যাওয়া বিদেশীদের নেবেন বলে ঠিক করে রেখেছেন।

ইতিমধ্যেই বেইতিয়া চলে গিয়েছেন কেরালা ব্লাস্টার্স দলে। যে দলটিতে কোচিং করাবেন এবার ভিকুনাও। ময়দানে জল্পনা, ফ্রান গঞ্জালেজ যেহেতু চেনা বিদেশী তাঁর সঙ্গে কথা বলতে পারে ইস্টবেঙ্গলও। আবার এও ঠিক, যেহেতু মোহনবাগানের সঙ্গে তাঁর দুই বছরের চুক্তি ছিল, সেই যুক্তি দেখিয়ে তিনি ফিফারও দ্বারস্থ হতে পারে। সেক্ষেত্রে সমস্যায় পড়ে যাবে সবুজ মেরুন ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More