সোমবার, অক্টোবর ১৪

কে ক’টা আসন পেয়েছে ভুলে যান, আসুন একসঙ্গে কাজ করি, বিরোধীদের বললেন মোদী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : সংসদের বাদল অধিবেশন শুরু হচ্ছে সোমবার। তার আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিরোধীদের মনে করিয়ে দিলেন, লোকসভায় তাঁদেরও গঠনমূলক ভূমিকা আছে। বিরোধীরা যত কম সংখ্যক আসনই পান না কেন, তাঁদের বক্তব্যকে সরকার গুরুত্ব দিতে বাধ্য।

এদিন সংসদ ভবনের বাইরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মোদী বলেন, বিরোধীদের প্রতিটি কথাই গুরুত্বপূর্ণ। কে ক’টা আসন পেয়েছে, তা নিয়ে বিরোধীদের ভাবিত হওয়ার কারণ নেই। আশা করি, তাঁরা সংসদের কাজকর্মে সক্রিয়ভাবে অংশ নেবেন।

এবার লোকসভা ভোটে যে ফলাফল হয়েছে, তা বিরোধীদের অনেকের কাছেই অপ্রত্যাশিত ছিল। মোদীর নেতৃত্বে বিজেপি একাই পেয়েছে ৩০০-র বেশি আসন। অর্থাৎ তারা একাই কেন্দ্রে সরকার গড়ে ফেলতে পারে। অন্যদিকে প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র ৫২ টি আসন। গতবারের চেয়ে তারা মাত্র আটটি আসন বেশি পেয়েছে। এছাড়া অন্যান্য আঞ্চলিক দলও ভালো ফল করতে পারেনি। এককথায় লোকসভায় এখন বিরোধীদের আসন সংখ্যা খুবই কম। সাধারণত সংসদের প্রত্যেক অধিবেশন শুরুর আগে বিরোধীরা একসঙ্গে বসে সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কৌশল স্থির করেন। কিন্তু এবার সেই বৈঠক হয়নি। বিরোধীদের এই শোচনীয় অবস্থার প্রেক্ষিতেই মোদী বলেছেন, কে ক’টা আসন পেয়েছে ভুলে যান। আসুন আমরা একসঙ্গে কাজ করি।

লোকসভায় বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ-র বিপুল সংখ্যক আসন থাকলেও রাজ্যসভায় এখনও তাদের গরিষ্ঠতা নেই। ২৪৫ আসনবিশিষ্ট রাজ্যসভায় এনডিএ-র এমপি আছেন মাত্র ১০২ জন। এর ফলে তিন তালাক সহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিল পাশ করাতে সরকারের আসুবিধা হতে পারে।

রবিবার মোদী সর্বদলীয় বৈঠক করেন। সেখানে উপস্থিত বিরোধী নেতাদের বলেন, আপনারা ভেবে দেখুন, জনপ্রতিনিধিরা মানুষের আশা পূরণ করতে পারছেন কি?  বৈঠকে কংগ্রেস বেকারত্ব, কৃষকদের দূরবস্থা, খরা ও সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতার ইস্যু তোলে। জম্মু-কাশ্মীরে দ্রুত নির্বাচন করার দাবি জানায়।

সংসদের বাদল অধিবেশন চলবে ২৬ জুলাই পর্যন্ত। প্রথম কয়েকদিনে নব নির্বাচিত এমপিরা শপথ নেবেন। স্পিকার নির্বাচিত হবেন। রাষ্ট্রপতি ভাষণ দেবেন। ৫ জুলাই বেলা ১১ টার সময় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বাজেট পেশ করবেন। তার আগের দিন সংসদে পেশ করা হবে আর্থিক সমীক্ষা।

লোকসভায় কে স্পিকার হবেন, তা নিয়ে এদিন ঘরোয়া আলোচনা হতে পারে। গত লোকসভায় যিনি স্পিকার ছিলেন, সেই সুমিত্রা মহাজন এবার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেননি।

Comments are closed.