বৃহস্পতিবার, জুন ২৭

জাপানি বোমা নিয়ে যুদ্ধে নেমে পড়েছে থাইল্যান্ড

 দ্য ওয়াল ব্যুরো: একসময় পৃথিবী সবুজে মোড়া ছিল। জীববৈচিত্র্যে ভরপুর ছিল পৃথিবীর বনভূমিগুলি। আজ সভ্যতার অসভ্যতায় বিশ্বের প্রায় সব দেশের ফুসফুসে ক্যানসার ধরেছে। মানে দ্রুত হারে হারিয়ে যাচ্ছে বনাঞ্চল। global satellite survey  ২০১৭ সালে একটি  রিপোর্টে জানিয়েছিল,  প্রতি সেকেন্ডে একটি ফুটবল মাঠের সমান আয়তনের বনভূমি পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাচ্ছে। শুধু ২০১৭ সালেই পৃথিবী হারিয়েছে ২৯.৪ মিলিয়ন হেক্টর বনভূমি। আবহাওয়ার এবং বনভূমির জীববৈচিত্রের উপর এর মারাত্মক প্রভাব আমরা এখনও অনুমান করতে পারছি না। যখন বুঝবো, তখন হয়তো অনেক দেরি হয়ে যাবে। কারণ সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হারিয়ে যাওয়া বনভূমি কিন্তু সঙ্গে নিয়ে যাচ্ছে হাজার হাজার প্রজাতির  দুষ্প্রাপ্য় ও বিপন্ন উদ্ভিদ এবং প্রাণী।

এশিয়ার দেশ থাইল্যান্ড  কয়েক দশকের মধ্যে তার অর্ধেক বন হারিয়ে ফেলেছিল। কিন্তু সবার অলক্ষ্যেই ঢাক ঢোল না পিটিয়ে সে এক যুদ্ধ শুরু করেছে। হ্যাঁ, আধুনিক এবং প্রশিক্ষিত থাই বায়ুসেনারা ২০১৬ সাল থেকেই বোমা ফেলতে শুরু করেছে। দুই বছরের মধ্যে প্রায় অর্ধেক যুদ্ধ জিতে ফেলেছে থাইল্যান্ড। থাই সরকার যুদ্ধের পর্যায়ে নামিয়ে নয়, উঠিয়ে এনেছে তাদের বনসৃজন প্রকল্পকে। রক্তপাতহীন এক যুদ্ধ। দেশ বাঁচানোর যুদ্ধ। থাইল্যান্ডের  বোমারু বিমানগুলি অবিরাম বোমা বর্ষণ করে চলেছে নিজের দেশের উপর। সেই ২০১৬ সাল থেকে। সবুজ বোমা, এ বোমায়  বারুদ থাকে না। থাকে গাছের বীজ। বোমা তৈরি হয় কাদা, জৈব সার আর উন্নত এবং রোগ প্রতিরোধে সক্ষম বীজ দিয়ে। বোমা তৈরির পদ্ধতি এবং যুদ্ধ কৌশল কিন্তু থাইল্যান্ডের নয়। জাপানি  উদ্ভিদ বিজ্ঞানী মাসানোবু ফুকুওকা এই সবুজ বোমার উদ্ভাবক।  সবুজ বোমা প্রথম ফেলা হয়েছিল হনুলুলুর পাহাড়ি অঞ্চলে, ১৯৩০ সালে। কিন্তু আইডিয়াটা ব্যাপক ভাবে গ্রহণ করতে সময় লেগে গেল ৬৯ বছর। কারণ বিভিন্ন দেশের বোমারু বিমানগুলি ব্যস্ত হয়ে পড়েছিল মানুষ মারতে।

পৃথিবীর টনক নড়ল ১৯৯৯ সালে। যখন এরোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং এবং সামরিক বিভাগে কাজ করতে থাকা লকহেড মার্টিন নামের এক  কোম্পানি এক দিনে ৯ লাখ গাছ লাগিয়ে ফেলল মিলিটারি এয়ারক্রাফটের সাহায্যে।  সেই শুরু, তবে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় দেশের সামরিক বিমানকে  সবুজ যুদ্ধে নামিয়ে দিয়ে থাইল্যান্ড সত্যি পৃথিবীকে স্বপ্ন দেখাতে শুরু করেছে।  সত্যিই আজও এই পৃথিবীতে প্রতিদিন কতো বোমা আকাশ থেকে পড়ছে। কতো মানুষ মরছে। হয়তো এই মুহূর্তে দুটো ফাইটার জেট দুটো এয়ারস্ট্রিপ থেকে দুই ধরণের বোমা নিয়ে উড়ল। একটা উড়ছে কয়েকশো মানুষ মারতে, অন্যটা পৃথিবীতে জীবের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে।

Comments are closed.