বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

রাজ্যে রাজ্যে ইভিএম নিয়ে গোলযোগ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : লোকসভা ভোটের দ্বিতীয় পর্যায়ের ভোটগ্রহণ চলছে বৃহস্পতিবার। লক্ষ লক্ষ মানুষ দাঁড়িয়েছেন ভোটের লাইনে। অসম, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু এবং কর্ণাটকে ভোটযন্ত্রে গোলযোগ হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এর মধ্যে সকলের নজর আছে তামিলনাড়ুর দিকে। এই রাজ্যে ভোটের আগে বেশ কয়েকটি জায়গায় তল্লাশি করে বিপুল পরিমাণ বেআইনি অর্থ উদ্ধার হয়। সেখানে ভেলোর লোকসভা কেন্দ্রে ভোট বাতিল করা হয়েছে।

১১ টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত পুদুচেরিতে এদিন ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। সব মিলিয়ে মোট ৯৫ টি লোকসভা কেন্দ্রে এদিন প্রার্থীদের ভাগ্য নির্ধারিত হবে।

দ্বিতীয় পর্বের ভোটগ্রহণের আগে ব্যাপক প্রচার করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ, কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী প্রমুখ। পরস্পরের নামে নানা বিতর্কিত মন্তব্য করার অভিযোগও উঠেছে রাজনীতিকদের বিরুদ্ধে। চারজন প্রথম সারির রাজনীতিক, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী, বিএসপি প্রধান মায়াবতী এবং সমাজবাদী পার্টির প্রার্থী আজম খানকে কিছুদিনের জন্য প্রচার বন্ধ রাখতে বলেছে নির্বাচন কমিশন।

তামিলনাড়ুতে এদিন ১৮ টি বিধানসভা কেন্দ্রেও উপনির্বাচন হচ্ছে। প্রার্থীদের মধ্যে আছেন এডিএমকে-র ই পালানিস্বামী এবং ও পনিরসেলভাম। ২৩৪ আসনবিশিষ্ট তামিলনাড়ু বিধানসভায় ২২ টি আসন শূন্য রয়েছে। ১৮ জন বিধায়ক বিদ্রোহী এডিএমকে নেতা টি টি ভি দীনাকরণের সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন। তাঁদের বিধায়ক পদ বাতিল করা হয়েছে।

এদিন যে ভিআইপি প্রার্থীদের ভাগ্য নির্ধারিত হবে, তাঁদের মধ্যে আছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং, জুয়াল ওরাওঁ, সদানন্দ গৌড়া এবং পন রাধাকৃষ্ণান। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়া, অপর দুই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দয়ানিধি মারান ও এ রাজা এবং ডিএমকে নেত্রী কানিমোঝির কেন্দ্রেও বৃহস্পতিবার ভোট হচ্ছে। অভিনেত্রী তথা রাজনীতিক হেমা মালিনীর কেন্দ্র মথুরাতেও ভোট হচ্ছে এদিন।

ওড়িশায় এদিন যাঁদের কেন্দ্রে ভোট হচ্ছে, তাঁদের মধ্যে আছেন মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক। তিনি গঞ্জাম জেলার হিনজিলি এবং বারগড়ের বিজেপুরে দাঁড়িয়েছেন। ভোটের আগে তামিলনাড়ুর ভেলোর কেন্দ্রে ডিএমকে প্রার্থী কাথির আনন্দের দুই ঘনিষ্ঠের থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ উদ্ধার হয়।

গত কয়েক সপ্তাহে তামিলনাড়ুতে বেশ কয়েকটি জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ উদ্ধার হয়। বুধবার টি টি ভি দীনাকরণের এক ঘনিষ্ঠের কাছে পাওয়া যায় ১ কোতী ৪৮ লক্ষ টাকা। গত মঙ্গলবার আয়কর অফিসাররা ডিএমকে নেত্রী কানিমোঝির বাড়িতে তল্লাশি করেন। পরে অবশ্য আয়কর কর্তারা জানান, তাঁরা ভুল খবরের ভিত্তিতে কানিমোঝির বাড়িতে তল্লাশি করতে গিয়েছিলেন।

Comments are closed.