মঙ্গলবার, নভেম্বর ১২

খাসোগির মৃত্যুর জন্য দায়ী সৌদির যুবরাজ, বললেন রাষ্ট্রপুঞ্জের তদন্তকারী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : সৌদি আরবের যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমনের কঠোর সমালোচক ছিলেন সাংবাদিক জামাল খাসোগি। গত অক্টোবর মাসে ইস্তানবুলে সৌদির দূতাবাসের মধ্যে তিনি খুন হন। তখনই অনেকে অভিযোগ করেছিলেন, যুবরাজের নির্দেশেই তাঁকে খুন করা হয়েছে। বুধবার রাষ্ট্রপুঞ্জের তদন্তকারী অ্যাগনেস কালামার্ড স্পষ্ট জানালেন, ওই খুনে যে যুবরাজ জড়িত, তাঁর স্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। সৌদির রাজধানী রিয়াধ থেকে এই মন্তব্যের কোনও প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি।

অ্যাগনেস কালামার্ড বিভিন্ন দেশের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, যতদিন না যুবরাজ নিজেকে নির্দোষ বলে প্রমাণ করছেন, ততদিন তাঁর সম্পদের ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হোক।

২ অক্টোবর ইস্তানবুলে সৌদির দূতাবাসে গিয়েছিলেন খাসোগি। বিবাহের আগে প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্র সংগ্রহ করতে তিনি সেখানে যান। তাঁকে দূতাবাসের ভিতরে খুন করে দেহটি কেটে টুকরো টুকরো করা হয়। তাঁর দেহাবশেষ পাওয়া যায়নি।

রাষ্ট্রসঙ্ঘের তরফে বলা হয়েছে, খাসোগিকে ষড়যন্ত্র করে খুন করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন অনুযায়ী এজন্য সৌদি আরবকে দোষী সাব্যস্ত করা হচ্ছে। রাষ্ট্রসঙ্ঘের তদন্তকারী অ্যাগনেস চলতি বছরেএ শুরুতে তুরস্কে গিয়েছিলেন। সেদেশের সরকারের থেকে তিনি খাসোগি হত্যা সম্পর্কে তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহ করেন। পরে তিনি বলেছেন, এই খুনের জন্য সৌদি প্রশাসনের কয়েকজন উচ্চপদস্থ অফিসার দায়ী। তাঁদের মধ্যে আছেন যুবরাজও। তাঁদের বিরুদ্ধে যথেষ্ট প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে।

Comments are closed.