সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩

পাহাড় জুড়ে মাত্রাছাড়া দূষণে টনক নড়ল সরকারের, এভারেস্ট অভিযানে নিষিদ্ধ প্লাস্টিক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দূষণের ভারে যেন ন্যুব্জ হতে বসেছিল বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ এভারেস্ট। প্রত্যেক বছর এত মানুষের অভিযান এবং সেই অভিযানের বর্জ্য জমছিল, যে গত কয়েক বছর ধরেই এভারেস্ট সাফাই অভিযান চালাতে হচ্ছিল নেপাল সরকারকে। টন টন প্লাস্টিক ও বর্জ্য নামিয়ে আনছিলেন সাফাইকারী শেরপারা। তাতেও যে এভারেস্টের অবস্থা বদলাচ্ছিল, তা নয়। তাই প্লাস্টিকের ব্যবহার এবার পুরোপুরি নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল এভারেস্টে।

সূত্রের খবর, মূলত ৩০ মাইক্রনের নীচে এক বার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিকের ক্ষেত্রেই এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ হয়েছে। এছাড়াও বলা হয়েছে, প্লাস্টিকের কোনও রকম জলের বোতলও ব্যবহার করতে পারবেন না অভিযাত্রীরা। ফলে ২০২০ সালের আরোহন মরসুম মরশুম থেকে এভারেস্ট অভিযাত্রীরা প্লাস্টিকের কোনও জিনিস সঙ্গে রাখতে পারবেন না। নেপালের খুম্বু পাসাং লামু পুরসভা বুধবার এই প্লাস্টিক ব্যানের কথা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করে। তবে মূলত এভারেস্টের কথা বললেও, নেপালের সব শৃঙ্গের ক্ষেত্রেই এই নিয়ম লাগু থাকবে।

সূত্রের খবর, ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে এই নিষেধাজ্ঞা পুরোপুরি কার্যকর হবে। তবে কেউ এই নিষেধ না মানলে কী হবে, তা এখনও ঠিক করা হয়নি। জরিমানা বা কোনও শাস্তির পরিকল্পনা পুরসভার মাথায় নেই। পর্বত আয়োজক সংস্থাগুলির সঙ্গে কথা বলেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা। এবং সংস্থাগুলিকে দায়িত্ব দিয়েছে, তাদের তরফে যে অভিযাত্রীরা যাবেন, তাঁরা যেন কোনও প্লাস্টিক না নিয়ে যান।

প্রতি বছরই আরোহণ মরসুম শেষ হলে, প্লাস্টিক বর্জ্যে চাপা পড়ে যায় এভারেস্টের অনেকটা অংশ। সেই আবর্জনা সরাতে হিমসিম খায় নেপাল সরকার। সেই কারণেই প্লাস্টিক ব্যানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পুরসভার কর্মকর্তারা বলেছেন, “এটি আমাদের অঞ্চল। আমাদের রুটিরুজি এই এভারেস্ট। আমাদের ঈশ্বর। একে পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে।”

Comments are closed.