Latest News

কেউ হিরে গিফট করুক, না-পসন্দ সুস্মিতার, এমনকী বয়ফ্রেন্ডও না, কেন জানেন?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সুস্মিতা সেন (susmita sen) হিরে (diamond) খুব পছন্দ করেন। কিন্তু জানেন কি, প্রাক্তন মিস ইউনিভার্স (ex miss universe) কখনই উপহার (gift) হিসাবে হিরে চান না!

সম্প্রতি ‘ম্যায় হু না’ অভিনেত্রী একটি বিনোদন চ্যানেলকে  সাক্ষাত্কারে জানান, তিনি কাউকে হিরে উপহার দেওয়ার অনুমতি দেন না, এমনকী বয়ফ্রেন্ড(boyfriend) রোহমান শওলের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম।  নিজেকে, অন্যদেরও হিরে উপহার দিতে ভালবাসেন তিনি।  সুস্মিতা প্রথম হিরে  কেনার অভিজ্ঞতা, খুশি শেয়ার করে বলেছেন, বন্ধুদের কাউকেই আমায় হিরে উপহার দেওয়ার সুযোগ দিই না। তা কখনও হয় না। আমি বরং নিজে কিনি, ওদের গিফট করতে ভালবাসি। প্রথম হিরেটা ছিল ১০ শতাংশ, সঙ্গে খাঁটি সোনার ব্যান্ড। ব্যান্ডটা খোলা থাকায় যে কোনও সাইজে খাপ খেয়ে যেত। তারপর ধীরে ধীরে ২২ ক্যারেটের দিকে ঝুঁকলাম।

কয়েক বছর আগে সুস্মিতা বলেছিলেন, মেয়েরা নিজেদের হিরে নিজেরাই কিনুন। সুস্মিতা  জানাচ্ছেন, আজও তিনি একই কথা বলতে চান। সাইজ একটা ব্যাপার বটে, তাই পুরুষটিকে বলি, এমন সাইজের হিরে কেন যেটা  হবে আয়তনে আমার হার্টের চেয়ে বড়  বা আমার হিরের সমান। কিন্তু সেটা তো হয় না। নিজের জন্য বেঞ্চমার্ক স্থির করা জরুরি। বছর কয়েক আগে সুস্মিতা নিজেকে গিফ্ট করা হিরের আংটির ছবি পোস্ট করে ক্যাপশন করেন, একটা হিরে চিরদিনের। আমার কাছে সবচেয়ে দামী রত্ন। নিজেকেই একটা দারুণ আংটি গিফট করলাম যা আমার হার্টের আয়তনের সমান।

একবার আংটি হাতে দেখা গিয়েছিল সুস্মিতাকে। জল্পনা শুরু হয়, এনগেজমেন্ট আসন্ন!  তবে যাবতীয় গুঞ্জন খারিজ করে সুস্মিতা বলেন, এই হিরে আমায় মনে করায়, হিরে পেতে হলে জীবনে পুরুষের দরকার নেই আমার। আমি নিজেই কিনতে পারি। সেই বিশ্বাসে আজও স্থির, অবিচল সুস্মিতা।

এদিকে সম্প্রতি নিজের ওয়েব সিরিজের দ্বিতীয় সিজনের শ্যুটিং শেষ করেছেন সুস্মিতা।

 

You might also like