Latest News

সকাল সকাল ফেসবুক পোস্ট শ্রীলেখার, দেবাংশুকে বললেন, ‘ভাল থেকো খোকা’

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নিজের ছবি জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হতেই সকাল সকাল তৃণমূলের যুব নেতা তথা অন্যতম মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্যকে ফেসবুক পোস্টে বিঁধলেন টলি অভিনেতা শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)। বললেন, ‘ভাল থেকো খোকা!’

ঘটনার সূত্রপাত কয়েকমাস আগে। স্বঘোষিত বামপন্থী বলেই টলিপাড়া এবং নেট দুনিয়ায় পরিচিত শ্রীলেখা (Sreelekha Mitra)। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে একাধিকবার সিপিএমের মিছিল-মিটিংয়ে দেখা গিয়েছে তাঁকে। শুধু নামমাত্র হাজিরা নয়, সোশ্যাল মিডিয়াতেও পার্টির প্রচারে বেশ সক্রিয় ছিলেন তিনি। এই নিয়েই ফেসবুকে শ্রীলেখাকে নিয়ে একটি মন্তব্য করেন তৃণমূল নেতা দেবাংশু (Debangshu Bhattacharya)। বলেন, ‘কে শ্রীলেখা মিত্র! গুগল করে জানতে হবে’। মানে ভাবখানা এমনই ছিল যে, শ্রীলেখা মিত্রকে তিনি চেনেনই না। এইধরনের আচরণ যে আসলে বিরোধী দলের নেতা-কর্মী কিংবা সমর্থকদের ছোট করে দেখার চেষ্টা, এমনই বলেছিলেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

কুরবানি বাদ দিয়ে ইদ মুবারক, ফেসবুকে পোস্ট শ্রীলেখার, সঙ্গে দিলেন বিধিবদ্ধ সতর্কতাও

সেসময় অবশ্য চুপ ছিলেন শ্রীলেখা। দেবাংশুর কটাক্ষের কোনও জবাব দেননি। তবে আজ, রবিবার বেশ কয়েকমাস পর পুরনো কথার ঝোল টেনে তৃণমূলের এই যুব নেতাকে পাল্টা দিলেন তিনি। শুক্রবার বিকেলেই এসেছিল সুখবর। ঘোষণা হয়েছিল জাতীয় পুরস্কার প্রাপকদের তালিকা। সেখানে সেরা বাংলা ছবি মনোনীত হয়েছিল শুভ্রজিৎ মিত্রের ‘অভিযাত্রিক’। অর্জুন চক্রবর্তী, দিতিপ্রিয়া রায় ছাড়াও এই সিনেমায় অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল শ্রীলেখা মিত্রকেও। সেই নিয়েই গর্ব করে ফেসবুক পোস্ট করেন অভিনেতা।

রবিবার সকালে শ্রীলেখা (Sreelekha Mitra) লিখলেন, ‘আমাদের সিনেমা অভিযাত্রিক দু-দুটো জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। সুপ্রতিম ভোল সেরা সিনেমাটোগ্রাফার মনোনীত হয়েছেন এবং সেরা বাংলা ছবি হিসাবে বাছা হয়েছে শুভ্রজিৎ মিত্রের এই সিনেমাকে। দেবাংশু ভট্টাচার্য (Debangshu Bhattacharya) আপনি ভাই বলেছিলেন, কে শ্রীলেখা মিত্র! গুগল সার্চ করতে হবে… যাই হোক, ভাল থেকো খোকা।’

Sreelekha Mitra

তবে পাল্টা দিয়েছেন দেবাংশুও। কমেন্ট বক্সে তিনি লিখেছেন, ‘যেচে পাত্তা পেতে এত ভাল লাগে কাকিমণি? যাই হোক, ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেয়ে বাংলার মুখ উজ্জ্বল করেছেন। শুভেচ্ছা রইল। হ্যাঁ, অভিনেতা শ্রীলেখা মিত্রকে চিনি, উনি আমার পছন্দের অভিনেতাও, সেই “নাগ নাগিনী” থেকেই। সিপিএমের পদলেহনকারী কোনও শ্রীলেখা মিত্রকে চিনি না, পাত্তা দিই না। নিজের পার্টির লোকেরাই যাকে ট্রোল করে, তাকে পাত্তা দেওয়ার প্রয়োজনীয়তা আমার নেই।’

Sreelekha Mitra

শুধু ‘অভিযাত্রিক’ নয়, তাঁর আরেক সিনেমা ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন ক্যালকাটা’ও সমালোচকদের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়েছে। দেশ বিদেশে বহু ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও গিয়েছে ছবিটি। পুরস্কারও মিলছে দেদার। এই সিনেমার জন্যই নিউইয়র্ক ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন শ্রীলেখা। সবমিলিয়ে এইমুহূর্তে নিজের অভিনয় কেরিয়ারে অন্যতম সেরা সময়ে রয়েছেন শ্রীলেখা।

You might also like