Latest News

ডাক টিকিটে বাঘের দিন, তথ্যচিত্রে ফুটে উঠবে রাজকীয় রয়্যাল বেঙ্গল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বাঘকে কেন্দ্র করে মানুষের কৌতূহলের অন্ত নেই। বিড়াল পরিবারের এই বৃহত্তম প্রাণীটি কেবল সবচেয়ে মহিমান্বিতই নয়, বরং এটি দাঁড়িয়ে রয়েছে বিলুপ্তির একেবারে প্রান্ত বিন্দুতে।

ভারতীয় উপমহাদেশে এক শতাব্দী আগেও বাঘের সংখ্যা ছিল আনুমানিক প্রায় ৫০ হাজার। বাঘ বিষয়ে সচেতনতা তৈরি এবং সংরক্ষণের প্রচেষ্টা সফল হওয়ার জন্য ভারতে বসবাসকারী বাঘের সংখ্যা বর্তমানে প্রায় চার হাজারে এসে দাঁড়িয়েছে। বাঘ সংরক্ষণের তাৎপর্য সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ২০১০ সাল থেকে প্রতি বছর ২৯ জুলাই দিনটি ‘বিশ্ব বাঘ দিবস’ হিসেবে পালিত হয়।

Image - ডাক টিকিটে বাঘের দিন, তথ্যচিত্রে ফুটে উঠবে রাজকীয় রয়্যাল বেঙ্গল

রাজকীয় এই প্রাণীটিকে নিয়ে লিখেছেন বহু লেখক। এই ধরনের বিষয়গুলি উল্লেখ করে ‘বাঘের দিন’ শিরোনামে একটি আকর্ষণীয় তথ্যচিত্র নির্মাণ করেছেন কোরক বসু। এটির চিত্রনাট্য লিখেছেন কবি তন্ময় চক্রবর্তী। বর্ণনার সঙ্গে ব্যবহৃত হয়েছে এশিয়াটিক সোসাইটির সহায়ক গবেষক এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সৃজন দে সরকারের সংগ্রহ এবং সংযোজনে অনিন্দ্যসুন্দর ডাকটিকিট এবং ডাক সম্পর্কিত ছবি। রয়েছে প্রথম দিবস কভারে যেখানে বিবৃত হয়েছে জিম করবেট এবং অন্যান্যদের এই বন্যপ্রাণের মুখোমুখি হবার অভিজ্ঞতা। ‘বাঘের দিন’ নামক ১৫ মিনিটের এই তথ্যচিত্রটি নির্মাণের উদ্দেশ্য বিশ্ব বাঘ দিবসে বিশ্বব্যাপী সচেতনতামূলক বার্তা ছড়িয়ে দেওয়া।  

Image - ডাক টিকিটে বাঘের দিন, তথ্যচিত্রে ফুটে উঠবে রাজকীয় রয়্যাল বেঙ্গল

বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী তথা এই তথ্যচিত্রের পরিকল্পক কোরক বসু বললেন, “আমি একজন বন্যপ্রাণী প্রেমিক, চিরকালই এই বিস্ময়কর প্রাণীটি আমাকে মুগ্ধ করেছে। প্রকৃতির এই সম্পদ রক্ষা করার প্রয়োজনীয়তা সব সময়েই অগ্রাধিকারে থাকে। এই ধরণের তথ্যচিত্র মানুষের মধ্যে বাঘ এবং তার সংরক্ষণ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হয়ে উঠবে। কোরক বসু ক্রিয়েশন্‌স সব সময়েই আকর্ষণীয় এবং সুচিন্তিত বিষয়বস্তু নিয়ে কাজ করে চলেছে এবং তা অব্যাহত থাকবে। বিশিষ্ট কবি তন্ময় চক্রবর্তী এবং এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত সকলকে ধন্যবাদ জানাই।”

তথ্যচিত্রের পরিকল্পনা, পাঠ ও নির্দেশনায় রয়েছেন কোরক বসু । ডাকটিকিট সংগ্রহ ও সংযোজনা সৃজন দে সরকারের। ভিডিওগ্রাফি পলাশ দাস। সুরারোপ করেছেন সৌমেন্দু দাস। বিশেষ কৃতজ্ঞতা অরিত্র রায় চৌধুরী, স্বরূপ চৌধুরী, তিষ্যা দাশগুপ্ত, বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরী।
কোরক বসু ক্রিয়েশনস ফেসবুক পেজে এটি দেখা যাবে।

You might also like