Latest News

রোহিত সেনের হিন্দি অবতার, নতুন মুখ আসছে ‘অনুপমা’য়

শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়

‘শ্রীময়ী’র আদলে তৈরি হিন্দি ধারাবাহিক ‘অনুপমা’-ও এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে। ‘শ্রীময়ী’র স্টোরিলাইন ধরেই এগোচ্ছে ‘অনুপমা’র গল্প। মুখ্যচরিত্রে বাঙালি অভিনেত্রী রূপালী গঙ্গোপাধ্যায়। রূপালী হিন্দি ধারাবাহিক জগতে চেনা মুখ। তিনি এর আগেও প্রচুর হিট সিরিয়াল করেছেন।‘শ্রীময়ী’ মেগাতে রোহিত সেন আসায় শ্রীময়ী জীবনে বেঁচে থাকার নতুন মানে খুঁজে পায় এবং নিজের পায়ে দাঁড়াতে শুরু করে।
আর এবার ‘শ্রীময়ী’র হিন্দি রিমেক ‘অনুপমা’ সিরিয়ালেও প্রবেশ ঘটতে চলেছে রোহিত সেনের হিন্দি অবতারের।‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকে শুরু থেকেই দেখানো হয়, যে শ্রীময়ী শ্বশুরবাড়িতে অবহেলিত, বঞ্চিত এক গৃহবধূ। স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়ি, এমনকি সন্তানরাও তাকে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করে। কিন্তু শ্রীময়ী মুখ বুজে সব সহ্য করে এবং সকলকে ভালবাসে, সকলকে নানা পদের রান্না করে খাওয়ায়। অনুপমাও ঠিক তাই। স্বামীর জীবনে অন্য মহিলা আসে। ঠিক বাংলায় যেমন অনিন্দ্যর জীবনে এসেছিল জুন গুহ। অর্থাৎ জনপ্রিয় জুন আন্টি। অনিন্দ্য-শ্রীময়ীর বিবাহবিচ্ছেদ হয়।এরপরই শ্রীময়ীর জীবনে ফিরে আসে তাঁর পুরোনো প্রেম রোহিত সেন। অভিনেতা টোটা রায়চৌধুরীর প্রবেশ ঘটে ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকে। রোহিত অবিবাহিত। কলেজে পড়ার সময় থেকেই সে শ্রীময়ীকে ভালবাসত। মাঝে শ্রীময়ীর বিয়ে হওয়ার কারণে তাঁদের ছাড়াছাড়ি হয়। রোহিতও চলে যায় আমেরিকা। পঁচিশ বছর পর রোহিত শ্রীময়ীর জীবনে বেঁচে থাকার নতুন আলো নিয়ে আসে এবং শ্রীময়ী নিজের পায়ে দাঁড়াতে শুরু করে।‘অনুপমা’তে অনিন্দ্যর হিন্দি অবতার বনরাজ চরিত্রে অভিনয় করছেন সুধাংশু পান্ডে। আর ‘জুন আন্টি’ থুড়ি ‘কাব্য গাঁধী’ তো বাংলারই বৌমা! স্বয়ং মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলের বৌ তিনি। মিঠুন-পুত্র মিমো চক্রবর্তীর সঙ্গে মদালসা শর্মার বিয়ে হয়েছে দু’বছর আগে। মিমো টলিউড বলিউডে হিরো রূপে ছবি করেছেন কিন্তু হিটের মুখ দেখেনি সেসব ছবি। বরং মিঠুন পুত্রবধূ ছোটোপর্দায় অনেক সফল। অনুপমা ও বনরাজের দাম্পত্যে আগুন ধরানোর কাজটি বেশ মন দিয়েই করছেন জনপ্রিয় খলনায়িকা।বর্তমানে যখন বাংলাতে রোহিত আর শ্রীময়ীর বিয়ে নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়ায় তখন শ্রীময়ীর হিন্দি রিমেক ‘অনুপমা’তে আর্বিভূত হচ্ছে রোহিত সেনের হিন্দি অবতার অনুজ কাপাডিয়া।শ্রীময়ীর কলেজ ক্রাশ ছিলেন রোহিত। কিন্তু অনুপমার স্কুলের সহপাঠী হলেন অনুজ। অনুজ কাপাডিয়া চরিত্রে অভিনয় করছেন গৌরব খান্না। ‘অনুপমা’ সিরিয়ালের গল্পে বিশাল চমক আসতে চলেছে গৌরব খান্নার আগমনে। অনুপমার জীবনেও আসবে নতুন বাঁকের মোড়। অনুপমা স্কুলের প্রাক্তনী-মিটে যাবে এবং সেখানেই অনুপমা বহু যুগ পর খুঁজে পাবে তাঁর স্কুলজীবনের ক্রাশ অনুজকে। স্কুলে অনুজ ছিল তখন সব মেয়েরই প্রথম পছন্দ। কিন্তু অনুজের পছন্দ ছিল একজনকেই, সে অনুপমা।সেদিন নাবালিকা অনুপমা ভয়ে অনুজের প্রেম প্রস্তাবে সাড়া দিতে পারেনি। কিন্তু অনুজের হাত ধরলে অনুপমার জীবনটাই পাল্টে যেতে পারত। লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের লেখা ‘শ্রীময়ী’র আদলেই হিন্দি গল্পের গতি এগোচ্ছে।
তবে এর আগে অনুপমার স্কুল-প্রেমিক অনুজের ভূমিকায় রনিত রায় বা রাম কাপুরকে ভেবে জল্পনা-কল্পনা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু এখন গৌরব খান্নাকে নিয়ে প্রোমো রিলিজের পর বোঝাই যাচ্ছে গৌরবই আসছে এই চরিত্রে।সদ্য গৌরব খান্না তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে রূপালী গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে নিজের ছবিও আপলোড করেছেন। সেই ছবি নিয়েই চলছে জোর বিতর্ক। দর্শকরা ট্রোল করতেও ছাড়ছেন না। রূপালী আর গৌরব জুটি ‘মা-ছেলে’ জুটি বলে ট্রোলও হচ্ছেন নেট পাড়ায়। রূপালির সঙ্গে গৌরবের বয়সের তফাত অনেকটাই।
‘শ্রীময়ী’তে ইন্দ্রাণী হালদারের থেকে বয়সে ও ইন্ডাস্ট্রিতে জুনিয়র টোটা রায়চৌধুরী। কিন্তু টোটা-ইন্দ্রাণী দুজনেই এখন আদর্শ জুটি হয়ে উঠেছে। রূপালী-গৌরবও নিশ্চয়ই বয়সের ফারাক কাটিয়ে আদর্শ জুটি হয়ে উঠবে এই আশা রাখাই যায়।গৌরব খান্না জানাচ্ছেন “আমার কোনওদিনই ‘অনুপমা’ দেখার সুযোগ ঘটেনি ব্যস্ততায়। কিন্তু ‘অনুপমা’র প্রযোজকের সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছে অনেকদিনই ছিল। সেটা আজ বাস্তবায়িত হল। অনুজ কাপাডিয়া চরিত্রটি হল এমন একজন ব্যক্তির যার বয়স চল্লিশ ছুঁইছুঁই। তাই আমি ওজন বাড়িয়ে এরকম একটা চরিত্রে অভিনয় করার চেষ্টা করছি। অনুপমা-অনুজ জুটির নামের শুরুতেও মিল। আশা করি এই নতুন চমক ভালো লাগবে দর্শকদের।”তবে মজার বিষয় এটাই রোহিত সেন ওরফে টোটা রায়চৌধুরীর লুকের সঙ্গে ভীষণ মিল রয়েছে অনুজ কাপাডিয়া ওরফে গৌরব খান্নার লুকের। যা আরও মন টানছে বাঙালি দর্শকদের ‘অনুপমা’ দেখতে।এখন দেখার টোটার মতোই গৌরব দর্শকদের মন জিতে নিতে পারেন কিনা!

You might also like