Latest News

করোনা আবহে মহারাষ্ট্রের পরে শ্যুটিং বন্ধ হল এই রাজ্যে, দেখে নিন আপনিও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের গ্রাফ এই মুহূর্তে ঊর্ধ্বমুখী। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্রে শুরু হয়েছে লকডাউন। বন্ধ হয়েছে শ্যুটিং। এবার সেই পথেই এগিয়ে গেল গোয়া। ২৮ এপ্রিল সম্পূর্ণ লকডাউন হয়েছিল গোয়ায়। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ থেকে বাঁচতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন গোয়া সরকার। এবার ‘দ্য এন্টারটেনমেন্ট সোস্যাইটি অফ গোয়া’-র নির্দেশে বন্ধ হয়ে গেল ছবি বা ধারাবাহিকের শ্যুটিংও। গোয়ায় শ্যুটিং করার অনুমতি দেওয়া বা নিয়ম নীতি লাগু করার দায়িত্ব গোয়া সরকার থেকে ইএসজি-র হাতেই তুলে দেওয়া আছে।

গোয়া সরকারের তরফে গোটা রাজ্যে কড়া নিয়ম জারি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা। যার জেরে কোনও জায়গায় একত্রিত হতে পারবেন না ৫ জনের বেশি মানুষ। এই পরিস্থিতিতে তাই শ্যুট করাও সম্ভব নয়। ইএসজি জানিয়েছে, করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে তবেই তাঁরা এই সিদ্ধান্ত নিয়ে ভাববেন!

মুম্বই ও চেন্নাইতে লকডাউনের কারণে বেশকিছু ছবির শ্যুটিং হচ্ছিল এখানে। বর্তমানে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে সমস্ত শ্যুট বাতিল করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইএসজি। যতদিন না পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে, ততদিন আর শ্যুট করা যাবে না এখানে। বলা বাহুল্য, হিন্দি ও দক্ষিণী ছবির নির্মাতাদের কাছে এই খবর খুবই হতাশার। বেশ ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে তাঁদের।

অর্জুন কাপুর-তারা সুতারিয়া তাঁদের নতুন ছবি ‘এক ভিলেন রিটার্নস’-এর শ্যুটিংয়ের জন্য বর্তমানে গোয়ায় ছিলেন। এছাড়া বহু হিন্দি ধারাবাহিকের কাজ হচ্ছিল এই রাজ্যে। যার মধ্যে অন্যতম, ‘কুমকুম ভাগ্য’, ‘গুম হ্যায় কিসি কে প্যায়ার মে’, ‘ইয়ে হ্যায় চাহাতে’, ‘মোলকি’।

You might also like