Latest News

‘থলথলে বৌদি’, বাম শ্রীলেখাকে কুরুচিকর আক্রমণের অভিযোগ গেরুয়া রিমঝিমের বিরুদ্ধে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একজন বামপন্থী দলের একনিষ্ঠ সমর্থক। আর একজন বিজেপি ঘনিষ্ঠ। টলিপাড়ার এহেন দুই অভিনেত্রীর দ্বন্দ্ব এবার সামনে এল সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে। বাম সমর্থক শ্রীলেখা মিত্রকে কুরুচিকর আক্রমণের অভিযোগ উঠল বিজেপির রিমঝিম মিত্রের বিরুদ্ধে।

ঠিক কী নিয়ে বিতর্কের সূত্রপাত? এদিন নিজের ফেসবুক পেজে তিনটি ছবি পোস্ট করেন শ্রীলেখা। একটি হালকা গোলাপি রঙের অফ শোল্ডার টপ পরে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে তোলা ছবি। আর একটি ওই একই পোশাকের সেলফি। কিন্তু এই দুই ছবির সঙ্গে ছিল একটি ছোট্ট স্ক্রিনশট। তা নিয়েই শুরু হয়েছে তোলপাড়।

দেখা গেছে, ওই স্ক্রিনশটে রয়েছে অভিনেত্রী রিমঝিম মিত্রের একটি কমেন্ট। কারও নাম না উল্লেখ করলেও কমেন্টে যে বডিশেমিং করা হয়েছে তা পরিষ্কার। বডিশেমিং অর্থাৎ কারও শরীরের গঠন নিয়ে ঠাট্টা বিদ্রূপ করা। শ্রীলেখা মিত্রের দাবি, তাঁকে উদ্দেশ্য করেই এই কমেন্ট করেছেন রিমঝিম।

বিতর্কিত কমেন্টটিতে লেখা রয়েছে, “থলথলে বৌদি আমায় ব্লকিয়েছে। কমরেট মাংস পিন্ড কি এটা ঠিক করল আমার সঙ্গে?” সেই সঙ্গে ইংরেজিতে লেখা রয়েছে “মুদি মাস্ট রিসাইন”।

শ্রীলেখা মিত্রের অভিযোগ, বারবারই শরীরের গঠন নিয়ে কটাক্ষের শিকার হতে হয় তাঁকে। নেট মাধ্যমেই চলে হেনস্থা। তবে রিমঝিম মিত্রের দিকে আঙুল তুলে তিনি বোঝাতে চেয়েছেন শুধু সাধারণ নেট নাগরিকরাই নন, টলিউডের কারও কারও মানসিকতাও একই ধাঁচের।

এরপর আরও একটি পোস্টে রিমঝিমের স্ক্রিনশটের সঙ্গে অন্য একজনের কুরুচিকর মন্তব্যের স্ক্রিনশটও শেয়ার করেছেন শ্রীলেখা। তিনি লিখেছেন, “বারবার আমি বডিশেমিংয়ের শিকার হই। ইন্ডাস্ট্রির ভিতরকার লোকজন, বা বাইরের, সবাই এটা করে। কারণ আমি মোটা। এই পোশাকটা আমি বাইরে কোথাও পরি না।” তবে নিজের চেহারা নিয়ে লজ্জিত নন একেবারেই, জানিয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র।

এদিকে রিমঝিম মিত্রের এই আচরণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছেন টলি পাড়ার আরেক শিল্পী সুজয়প্রসাদ চট্টোপাধ্যায়।শ্রীলেখার পোস্টের নীচে রিমঝিমকে উদ্দেশ্য করে তিনি লিখেছেন, ” এটা তুমি কীভাবে লিখলে? আমি কৈফিয়ত চাইছি কারণ আমি তোমায় ছোটো থেকে চিনি। তোমার মতো শ্রীলেখাও আমার প্রিয়।”

You might also like