Latest News

ত্বকের যত্ন রোজ চাই, তবে এই ক’দিন ‘নো ডায়েট’: পুজো আড্ডায় অদিতি

‘এক আকাশের নীচে’-র নন্দিনী বললেই মনে পড়ে একটাই মুখ তিনি অদিতি চট্টোপাধ্যায় (actress aditi chatterjee)। অদিতির মতো সুন্দর প্রতিমা-মুখ অভিনেত্রী টলিপাড়ায় বিরল। ‘দ্য ওয়াল’ পুজো আড্ডায় অদিতি চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়।কুড়ি বছর আগে বাংলার টেলি দর্শকরা রাত আটটায় ‘এক আকাশের নীচে’ সিরিয়াল দেখতে বসতেন আকাশ-নন্দিনীর জুটি দেখবে বলে। তখন সবার ঘরেঘরে সুপারহিট জুটি শাশ্বত-অদিতি চট্টোপাধ্যায়। যে জুটির জনপ্রিয়তা কোন অংশে কম ছিল না বড় পর্দার প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা জুটির চেয়ে। আজও তাঁদের মনে রেখেছেন বহু দর্শক, তাই অনেকের কাছেই অদিতি মানেই নন্দিনী।

আপনার পুজোর প্ল্যান কী?

আমার পুজো প্ল্যান হল নো-ডায়েট। জমিয়ে খাওয়াদাওয়া। বাঙালি খাবার সবসময় পুজোয় প্রথম পছন্দ আমার। এছাড়াও আর একটা কাজ করব। করোনার বিধিনিষেধ মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঠাকুর দেখব। ঠাকুর দেখার সময় আমি বার করে নিই পুজোতে। আর নিজের পরিবারের সবার সঙ্গেও সময় কাটাব।পুজোর সাজ?

কুর্তি আর শাড়ি দুটোই আমার পছন্দের লিস্টে থাকে সবসময়। তবে পুজো মানেই আমার কাছে শাড়ি। বাঙালি সাজ।অদিতিকে আমরা ২০ বছর আগে নন্দিনী রূপে যেমন দেখেছি আজও ততটাই সুন্দর। উজ্জ্বল নন্দিনীকে দেখে আজও ছেলেরা প্রেমে পড়ে! কিছু সৌন্দর্যের টিপস দেবেন?

হা হা হা। মেকআপ টিপস দেবার মতো জ্ঞানপ্রাপ্ত বিউটিশিয়ান আমি নই। তাছাড়া আমার মনেও হয় না মেকআপ টিউটোরিয়াল করে বা মেকআপ করে সুন্দর হওয়া যায়। তার চেয়ে বলব, ত্বক ভাল রাখতে বেশি করে জল খাওয়া জরুরি, যেটা আমরা সবথেকে বেশি অবহেলা করি। সেই সঙ্গে অনেক তাজা ফল, ঠিকঠাক ডায়েট-চার্ট, ঋতুমাফিক মরসুমি সবজি খাওয়া, তেল, ভাজা,ফাস্টফুড এসব কম খাওয়া ভাল।এসবের পাশাপাশি রোজ রাতে শোয়ার আগে ফেসওয়াশ দিয়ে মুখটা ধুয়ে যে কোনও ভাল ক্রিম লাগান। আর যদি মেকআপ করেন, তবে তা তুলে, স্কিন ভাল করে পরিষ্কার করেই রাতে ঘুমোতে যান। ত্বক ভাল রাখতে আমিও এগুলোই করে থাকি।

পুজোয় পথের ভিড়ে শিকেয় আদালতের করোনা-সতর্কতা

আপনার করা প্রিয় চরিত্র?

‘এক আকাশের নীচে’র নন্দিনী তো আইকনিক। রবি ওঝা আমাকে এমন একটা চরিত্র দিয়েছিলেন যেটাই আমার সিগনেচার চরিত্র হয়ে গেল। এছাড়াও ‘গোয়েন্দা গিন্নি’র নন্দা, ‘রানি রাসমণি’র মা ভৈরবী আমার পছন্দের। ঋতুপর্ণ ঘোষের ‘দহন’ ছবিতেও কাজ করেছিলাম, স্মরণীয় অভিজ্ঞতা। তবে সেটা অনেকেই ভুলে গেছেন।আমি যখন যে চরিত্র করি সেটার সঙ্গেই ভীষণ একাত্ম হয়ে পড়ি। তাই আমার করা সব চরিত্রই আমার প্রিয়।পুজোয় আপনার অনুরাগীদের কোনও বার্তা?

সবাই পুজোয় আনন্দ করো, কিন্তু বিধিনিষেধ মেনে। তোমার আনন্দ যেন অন্যের দুঃখের কারণ না হয়। চারপাশের সকলকে ভাল রাখার চেষ্টা করো। শুভ শারদীয়া।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like