বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

সলমনের চোখে শাহরুখই ‘হিরো’, ইনস্টাগ্রামে ভিডিও শেয়ার করে জানালেন ভাইজান

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ঐশ্বর্যা রাইয়ের ম্যানেজারকে আগুনে ঝলসে যাওয়ার হাত থেকে বাঁচিয়েছেন শাহরুখ খান। আমজনতা থেকে সেলিব্রিটি এ কথা জানেন সকলেই। এই কাজের জন্য শাহরুখকে সাধুবাদও জানিয়েছেন সবাই। তবে কিং খানের প্রশংসা একটু আলাদা ভাবেই করলেন সলমন খান। হবে নাই বা কেন! ভাইজান বলে কথা। তাঁর প্রশংসা করার স্টাইল তো বাকিদের থেকে আলাদাই হবে। আর সেই প্রশংসা যদি হয় কিং খানের তাহলে তো কথাই নেই।

ইনস্টগ্রামে শাহরুখের ছবি ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’-এর একটা ক্লিপিং শেয়ার করেছেন সলমন। সঙ্গে নিজেই দিয়েছেন ভয়েস ওভার। আর ভাইজান বলেছেন, “হিরো তো সেই হয় যে আগুনের মধ্যে ঝাঁপিয়ে, আগুন নিভিয়ে কাউকে বাঁচায়।” ওই ক্লিপিংসে দেখা গিয়েছে শাহরুখের জামায় আগুন লেগে গিয়েছে। তবে বেশ কায়দার সঙ্গে সবটা সামলে নিচ্ছেন শাহরুখ। প্রসঙ্গত ফারহা খানের এই ছবিতে দীপিকা পাড়ুকোন শাহরুখের কাছাকাছি এলেই কিছু না কিছুতে আগুন ধরে যেত। সলমনের শেয়ার করা ক্লিপিংও ছবির এমনই একটি অংশের দৃশ্য।

বলিউডে প্রচলিত কথা শাহরুখ-সলমনের নাকি আদায়-কাঁচকলায় সম্পর্ক। দু’জনের মধ্যে সমস্যা নাকি এতই জটিল যে তাই একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ারও করেন না এই দুই অভিনেতা। তবে প্রকাশ্যে কখনই কোনও অভদ্র আচরণ করতে দেখা যায়নি কাউকেই। বরং অ্যাওয়ার্ড শোয়ের মঞ্চ হোক, কিংবা কোনও রিয়েলিটি শো অথবা সিনেমার একঝলক দৃশ্য, সবেতেই শালীনতা বজায় রেখেছেন শাহরুখ-সলমন। এক ঝলক দেখলে লোকে বলতে বাধ্য যে কেবল পর্দায় নয়, বাস্তবেও করণ-অর্জুনের মতোই ভাইয়ের সম্পর্ক এঁদের।

শাহরুখকে প্রশংসা করে ভিডিও শেয়ারের ঘণ্টাখানের মধ্যেই প্রায় ৭ লক্ষ লোক দেখে ফেলেছেন ভাইজানের পোস্ট। কমেন্ট বক্সে জমা হয়েছে অসংখ্য শুভেচ্ছা বার্তা।

দেখুন সেই ভিডিও।

View this post on Instagram

@iamsrk

A post shared by Chulbul Pandey (@beingsalmankhan) on

উপস্থিত বুদ্ধিতেই দীপাবলির পার্টিতে বড় বিপদের হাত থেকে বাঁচলেন ঐশ্বর্যা রাই বচ্চনের ম্যানেজার অর্চনা সদানন্দকে বাঁচিয়েছিলেন শাহরুখ খান।

দু’বছর পর জলসাতে দীপাবলির পার্টি দিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। বলিউডের প্রায় সব তারকা হাজির ছিলেন সেখানে। গৌরীকে নিয়ে হাজির ছিলেন শাহরুখ খানও। পার্টি চলাকালীনই ঘটে এই দুর্ঘটনা। জানা গিয়েছে, ঐশ্বর্যার ম্যানেজার অর্চনা নিজের মেয়ের সঙ্গে উঠোনে ঘুরছিলেন। সেই সময় হঠাৎ করেই তাঁর লেহেঙ্গাতে আগুন ধরে যায়। ঘটনায় চমকে ওঠেন সবাই। কী করবেন কেউ বুঝে উঠতে পারছিলেন না। সেই সময়ই হিরোর ভূমিকায় এসআরকে।

সূত্রের খবর, সেই সময় কাছেই স্ত্রী গৌরীর সঙ্গে ছিলেন শাহরুখ। সময় নষ্ট না করে সঙ্গে সঙ্গে নিজের জ্যাকেট খুলে তার সাহায্য আগুন নেভাতে শুরু করেন তিনি। কিছুক্ষণ পরেই নিরাপত্তা রক্ষীরা ছুটে আসেন। কিন্তু ততক্ষণে আগুন নিভিয়ে ফেলেছেন শাহরুখ। যদিও তারমধ্যেই শরীরের কিছুটা পুড়ে যায় অর্চনার।

সঙ্গে সঙ্গে অর্চনাকে নিয়ে যাওয়া হয় নানাবতী হাসপাতালে। সেখানে আইসিইউতে ভর্তি আছেন তিনি। হাসপাতালের তরফে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “অর্চনার শরীরের ১৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে। আপাতত স্থিতিশীল তিনি। যাতে সংক্রমণ না হয় তাই তাঁকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। শাহরুখের হাতও খানিকটা পুড়েছে। তাঁকে চিকিৎসা করার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।“

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯ – এ প্রকাশিত গল্প

শেষ ট্রাম

Comments are closed.